• বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪৩১

  • || ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার

গান তৈরির এআই মডেল আনছে গুগলের ডিপমাইন্ড

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২৩  

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) প্রযুক্তি ব্যবহার করে গান তৈরির জন্য ‘লিরিয়া’ এবং পরীক্ষামূলক এআই মডেল আনার ঘোষণা দিয়েছে গুগলের ডিপমাইন্ড। এ জন্য ইউটিউবের সঙ্গে অংশীদারত্বে কাজও করছে প্রতিষ্ঠানটি। লিরিয়া মডেল দিয়ে একই সঙ্গে বাদ্যযন্ত্র, কণ্ঠসহ উচ্চমানের সংগীত তৈরি করা যাবে।

গুগল ডিপমাইন্ডের এক ব্লগে বলা হয়েছে, সৃজনশীল ভাব প্রকাশের জন্য সংগীত হলো জনপ্রিয় একটি ধারা। এ সংগীত হতে পারে জ্যাজ থেকে মেটাল বা টেকনো থেকে অপেরা। এখন পর্যন্ত এআই ব্যবহার করে গানের কথা, সুর, ছন্দ ও কণ্ঠের মিশেলে সংগীত তৈরি অনেক চ্যালেঞ্জিং। আর ডিপমাইন্ডের নতুন সুবিধা সম্পর্কে  প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডেমিস হাসাবিস তাঁর এক্স পোস্টে লিখেছেন, শুধু একটি লিখিত প্রম্পট থেকে লিরিয়া কণ্ঠসহ আকর্ষণীয় সংগীত তৈরি করতে পারবে। একই সঙ্গে শিল্পীদের জন্য নতুন মিউজিক এআই টুল চালু করা হচ্ছে এবং সৃজনশীল চর্চা বাড়াতে ইউটিউবের সঙ্গে ও মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে অংশীদারত্বে কাজ করা হচ্ছে।

লিরিয়ার সঙ্গে ড্রিম ট্র্যাক এবং পরীক্ষামূলক কিছু এআই মিউজিক টুল নিয়ে কাজ করছে ডিপমাইন্ড। ড্রিম ট্র্যাক নামের টুলটির মাধ্যমে ইউটিউব শর্টসের জন্য মিউজিক তৈরি করা যাবে। যার ফলে নির্মাতা, শিল্পী ও ফ্যানরা যূথবদ্ধ হতে পারবেন। এ ছাড়া শিল্পী, গীতিকার ও প্রযোজকদের সমন্বয়ে কিছু এআই টুল তৈরি করা হচ্ছে।

গুগলের ডিপমাইন্ড বলছে, নির্দিষ্ট কিছু নির্মাতা ড্রিম ট্র্যাকের সুবিধা ব্যবহার করে লিরিয়ার মাধ্যমে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে কিছু শিল্পীর কণ্ঠ ও সুরভঙ্গি ব্যবহার করে মৌলিক গান তৈরি করতে পারবেন। এ জন্য নির্মাতারা অ্যালেক বেঞ্জামিন, চার্লি পুথ, চার্লি এক্সসিএক্স, ডেমি লোভাটো, জন লিজেন্ড, সিয়া, টি পেইন, ট্রয়ে সিভান এবং পাপুজের মতো শিল্পীর কণ্ঠ ব্যবহার করতে পারবেন। একটি ক্যারোসেল থেকে কাঙ্ক্ষিত শিল্পীর নাম নির্বাচন করে ইউটিউব শর্টস ভিডিও তৈরির জন্য ৩০ সেকেন্ডের গান তৈরি করতে পারবেন নির্মাতারা। ড্রিম ট্র্যাক দিয়ে গানের কথাও লিখে নেওয়া যাবে। এসব গান যে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে তা শনাক্তে ওয়াটারমার্কও দেবে গুগল। এর ফলে শ্রোতারা সহজে বুঝতে পারবেন, গানটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে তৈরি হয়েছে নাকি শিল্পীর প্রকৃত কণ্ঠে শোনা যাচ্ছে।