• মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪৩০

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে

ইভিএমে ভোট হলে কোন কারচুপি করার সুযোগ থাকবে না: শাজাহান খান এমপি

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২ আগস্ট ২০২২  

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ যারা ইভিএম নিয়ে বিরোধিতার খাতিরে বিরোধিতা করছে, মূলত সেসব দলও চান ইভিএমে ভোটগ্রহণ হোক, এতে কারচুপির কোন সুযোগ থাকবে না বলে বলেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য শাজাহান খান। সোমবার দুপুরে মাদারীপুরে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

শাজাহান খান বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তিনশ আসনেই ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ চেয়েছেন। এতে নানা মহলে একটি প্রশ্ন উঠেছে, নির্বাচন কমিশন কি তিনশ আসনেই ইভিএম দিতে পারবে কিনা? আমরা মনে করি, এখনও নির্বাচনের যে সময় বাকি আছে, তাতে পুরো তিনশ আসনেই ইভিএমে ভোটগ্রহণ সম্ভব। সে ভাবেই নির্বাচন কমিশনকে কাজ করতে হবে। কারণ ইভিএমে ভোট হলে কোন কারচুপি করার সুযোগ থাকবে না। ইতোমধ্যে যেসব নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার হয়েছে, সেখানে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়েছে।’

ইভিএমের বিরোধিতার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, যারা এখন ইভিএমে ভোটগ্রহণ নিয়ে বিরোধিতা করছে, এটা মূলত বিরোধিতার খাতিরে বিরোধিতা করা। মূলত তারাও চান ইভিএমেই ভোট হোক। আর কয়েকটি দলের বিরোধিতার করার আরেকটি কারণ হলো তারা হয়তো নির্বাচনে আসবে না। তারা বর্তমানের সুষ্ঠু পরিবেশকে ঘোলা করতে নানা রকম ষড়যন্ত্র করছেন।

এ সময় শাজাহান খান মাদারীপুর সদর উপজেলার বীরমুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সনদ ও স্মার্ট আইডি কার্ড বিতরণ, অসহায় মানুষের মধ্যে হুইল চেয়ার ও সেলাই মেশিন বিতরণ করেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. ওবায়দুর রহমান খান, সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহজাহান হাওলাদার, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমান খান। সভায় সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাঈনুদ্দিন।