• মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪৩০

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে

সূর্য পর্যবেক্ষণে প্রথমবারের মতো মিশন পাঠাচ্ছে ভারত

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২৯ জানুয়ারি ২০২৩  

সৌর জগতের কেন্দ্রে থাকা সূর্য এবং এর উপরিভাগের অংশ অর্থাৎ সোলার করোনা পর্যবেক্ষণ করতে প্রথমবারের মতো মিশন পাঠাচ্ছে ভারত। দেশটির মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্ডিয়ার স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশন (ইসরো) চলতি বছরের জুন-জুলাই মাসের মধ্যেই এ মিশন পাঠানোর পরিকল্পনা করেছে। মিশনের নাম দেয়া হয়েছে আদিত্য-এল১।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরোর চেয়ারম্যান এস. সোমানাথ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গত বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) মিশনের মূল অংশ ভিজিবল লাইন এমিশন করোনাগ্রাফ বা ভিইএলসি-এর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে এই তথ্য জানান তিনি। মিশনটি এ বছরের আগস্ট মাসে শেষ হবে। উল্লেখ্য, ভিইএলসি তৈরি করেছে ভারতের ইনস্টিটিউট অব অ্যাস্ট্রোফিজিকস ব্যাঙ্গালুরু।

আদিত্য এল-১ মিশনটি পরিচালনা করবে ইসরো। সবমিলিয়ে এই মিশনে ভারত ৭টি পে-লোড বা রিসার্চ প্রোব পাঠাচ্ছে। যার মধ্যে ভিইএলসি প্রধান গবেষণা ইউনিট। এই মিশন ধারাবাহিকভাবে সূর্যকে পর্যবেক্ষণ করবে।

ভিইএলসি ছাড়াও ইসরো এবং অন্যান্য গবেষণা প্রতিষ্ঠান আরও ছয়টি গবেষণা প্রোব তৈরি করেছে। এসব প্রোব মূলত সূর্যকে বিভিন্ন দৃষ্টিকোন থেকে পর্যবেক্ষণের জন্য ব্যবহার করা হবে। এ বিষয়ে এস. সোমানাথ বলেছেন, ‘পৃথিবী এবং এর আশপাশে সূর্যের প্রভাব বোঝা এখন খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে এবং আদিত্য-এল১ এ বিষয়ে আলোকপাত করার লক্ষ্যেই পাঠানো হবে।’  

ভিইএলসির কাজ কী এ বিষয়ে আলোকপাত করেছেন, ভিইএলসি প্রজেক্টের প্রধান ইনভেস্টিগেটর রাঘবেন্দ্র প্রাসাদ। তিনি বলেছেন, ‘মহাকাশে থাকা অন্য কোনো সোলার করোনাগ্রাফের সোলার ডিস্কের কাছাকাছি গিয়ে সোলার করোনার ছবি তোলার ক্ষমতা ততটা নেই, যতটা রয়েছে ভিইএলসির।’

তিনি জানান, ভিইএলসি সূর্যের খুব কাছাকাছি পৌঁছাতে পারবে এবং একই সময়ে খুব উচ্চ রেজোলিউশনে সেকেন্ডে একাধিকবার সূর্যের করোনার ছবি তুলতে পারবে।