• সোমবার ২২ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৯ ১৪৩১

  • || ১২ শাওয়াল ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বাংলাদেশ সর্বদা প্রস্তুত : প্রধানমন্ত্রী দেশীয় খেলাকে সমান সুযোগ দিন: প্রধানমন্ত্রী খেলাধুলার মধ্য দিয়ে আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে: রাষ্ট্রপতি শারীরিক ও মানসিক বিকাশে খেলাধুলা গুরুত্বপূর্ণ: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির বিরুদ্ধে কোনো রাজনৈতিক মামলা নেই: প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে পশুপালন ও মাংস প্রক্রিয়াকরণের তাগিদ জাতির পিতা বেঁচে থাকলে বহু আগেই বাংলাদেশ আরও উন্নত হতো মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার প্রতি নজর রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর প্রধানমন্ত্রী আজ প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন করবেন

আবারও বিপজ্জনক ১০ অ্যাপ সরিয়ে নিলো গুগল

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৩ মার্চ ২০২৪  

কমবেশি সবাই সারাদিন অসংখ্যবার গুগল ব্যবহার করেন। যখন যা কিছু জানতে ইচ্ছা হয় কয়েকটি ক্লিকেই গুগল থেকে জেনে নিতে পারছেন। গুগলের প্লে স্টোর থেকে যখন খুশি অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে পারছেন।

তবে আসল অ্যাপের রূপে ঘাপটি মেরে থাকে অনেক নকল ও বিপজ্জনক অ্যাপ। যা ব্যবহারকারীদের ফোনের তথ্য চুরি করে। এসব তথ্য ডার্ক ওয়েবে বিক্রি করে আবার কখনো সরাসরি ব্যবহারকারীকে ব্ল্যাকমেইল করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। এবার আরও ১০ অ্যাপ প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে নিলো গুগল।

গাইডলাইন অমান্য করেছে। এমন অভিযোগেই জনপ্রিয় ১০টি অ্যাপকে প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গুগল।গুগলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১০টি অ্যাপের বিরুদ্ধে নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগ তোলে গুগল। প্লে স্টোরের পরিষেবার জন্য এই ডেভেলপাররা গুগলকে কোনোরকম অর্থ দেয়নি। বকেয়া মেটানোর জন্য তাদের অতিরিক্ত সময়ও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশেও পর কোনো সাড়া দেয়নি অ্যাপগুলো। আর সেকারণেই এবার নাকি চরম সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন সংস্থা।

গুগল একটি পোস্ট করে জানিয়েছে, ‘বর্তমানে গুগল প্লে স্টোরের সঙ্গে যুক্ত দুই লাখেরও বেশি ভারতীয় ডেভেলপার। তারা প্রত্যেকেই আমাদের পলিসি মেনে চলে। আমরা যে একটি নিরাপদ প্ল্যাটফর্ম, সেই সত্যতা বজায় রাখতেই এই পলিসি মেনে চলতে বলা হয়। কিন্তু অতিরিক্ত সময় দেওয়ার পরও ১০টি কোম্পানি প্লে স্টোরকে কোনো বকেয়া অর্থ দেয়নি। যদিও অন্য অ্যাপ স্টোরের পেমেন্ট পলিসি মেনেই কাজ করেছে তারা।’

এরপরই গুগল জানায়, এই ডেভেলেপারদের তিন বছরেরও বেশি সময় দেওয়া হয়েছে যাতে তারা গাইডলাইন মেনে চলে। তা সত্ত্বেও নিয়ম মানেনি তারা। সেই কারণেই এধরনের সিদ্ধান্তের পথে এগোতে হচ্ছে।