• সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
আব্দুল কাদের জিলানীর (র.) মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ নির্বাচনে যথাযথ দায়িত্ব পালন করায় ডিসিদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর ভোক্তাদের যেন হয়রানি হতে না হয়, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে বাজারে নজরদারি-মজুত ঠেকাতে ডিসিদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে সশস্ত্র বাহিনী যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে বেইলি রোডে অগ্নিকান্ড কবলিত ভবনে ফায়ার এক্সিট না থাকায় হতাশ নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ‘কোনো একটি জিনিস না খেলে রোজা হবে না, এ মানসিকতা পাল্টাতে হবে’ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই

আন্দোলনে ব্যর্থ হ‌য়ে আগুন দিচ্ছে বিএনপি: ওবায়দুল কা‌দের

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২৩  

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির নির্বাচনকেন্দ্রিক আন্দোলন ব্যর্থ। এখন তারা আগুন দিচ্ছে। যারা নির্বাচনের বিরুদ্ধে নাশকতা করছে, তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত।
শনিবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবা‌দিক‌দের সঙ্গে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা আজ মানবা‌ধিকার নি‌য়ে কথা ব‌লেন, তারা‌ তো ২১ আগস্ট নি‌য়ে কোনো কথা ব‌লে না। এই দিন‌টি এক নৃশংসতম হত্যাযজ্ঞের ভয়াল দিন। আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ গ্রেনেড হামলায় রূপ নেয় মৃত্যুপুরীতে। সেই দি‌নের নারকীয়, অমান‌বিক হত্যাযজ্ঞ কর্মকাণ্ডের স্মৃ‌তি‌ আজও স্তব্ধ ক‌রে‌ দেয়। শুধু  ২১ আগস্ট নয় বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আম‌লে ফা‌হিমা, পূ‌র্ণিমার ম‌তো বুহু নারী ধর্ষিতা হ‌য়েছেন, তা নি‌য়ে‌ তো তারা কোনো কথা ব‌লে না?

তি‌নি ব‌লেন, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে হিংসার দানবীয় সন্ত্রাস আক্রান্ত করে মানবতাকে। নিহত হন আইভি রহমানসহ বহু নেতা-কর্মী। ত‌বে বেঁ‌চে যান আক্রান্ত হওয়া তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বহু নেতাকর্মী। আজও গ্রেনেড হামলার শিকা‌র হয়ে পঙ্গুত্বজীবন বয়ে বেরাচ্ছেন সেদিনের আহতরা। এসব নি‌য়ে‌ তো আন্তর্জা‌তিক মানবা‌ধিকার সংস্থাগু‌লো‌ কোনো কথা বলে না। ব‌লেনা কেন?

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, দেশি-বিদেশি চা‌পে উদ্বিগ্ন নই আমরা। যত ষড়যন্ত্রই হোক, সুষ্ঠুভাবে নির্বাচনে অটল থাকবে আওয়ামী লীগ।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বার বার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন, আমাদের নির্বাচন হবে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। সুতরাং নিষেধাজ্ঞা আরোপের কোনো যৌক্তিক কারণ আমরা দেখছি না। বরং যারা সন্ত্রাসের মাধ্যমে নির্বাচনকে বাধাগ্রস্ত করার পথ বেছে নিয়েছেন তাদের ওপরই নিষেধাজ্ঞা আসার কথা।
কা‌দের আরো বলেন, মানবাধিকার দিবস ঘিরে কর্মসূচির নামে নাশকতা করার চেষ্টা করছে বিএনপি। নির্বাচনের পক্ষের শক্তিদের ঐক্যবদ্ধভাবে তা মোকাবিলা করতে হবে।

আওয়ামী লী‌গের এই শীর্ষনেতা বলেন, মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে আওয়ামী লীগ অগ্রগণ্য।
তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে নিরপেক্ষ ও স্বাধীন মানবাধিকার কমিশন আইন করেছেন। বর্তমানে দেশে মানবাধিকার কমিশন স্বাধীন ও নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারছে। জন্ম থেকে মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য প্রধানমন্ত্রী সংগ্রাম অব্যাহত রেখেছেন।
নেতাকর্মীদের সতর্ক করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বিভিন্ন রকম চাপ আসতে পারে, বাংলাদেশে দুর্ভিক্ষ সৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এসব মোকাবিলা করার জন্য রাজনৈতিক ও মানসিক শক্তি আমাদের আছে। আওয়ামী লীগ বার বার ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করেই আজকের এই অবস্থানে রয়েছে। ষড়যন্ত্র মোকবিলা করেই আমরা গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিয়ে এসেছি। গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে যত বাধায় আসুক আমরা এই লড়াইয়ে অবিচল।