• সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
আব্দুল কাদের জিলানীর (র.) মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ নির্বাচনে যথাযথ দায়িত্ব পালন করায় ডিসিদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর ভোক্তাদের যেন হয়রানি হতে না হয়, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে বাজারে নজরদারি-মজুত ঠেকাতে ডিসিদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে সশস্ত্র বাহিনী যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে বেইলি রোডে অগ্নিকান্ড কবলিত ভবনে ফায়ার এক্সিট না থাকায় হতাশ নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ‘কোনো একটি জিনিস না খেলে রোজা হবে না, এ মানসিকতা পাল্টাতে হবে’ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই

গাজায় মানুষ হত্যার বিষয়ে বিএনপির কোনো প্রতিক্রিয়া নেই

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২৩  

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, গাজায় নির্বিচারে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। এসব নিয়ে তাদের (বিএনপির) মধ্যে কোনো প্রতিক্রিয়া নেই। তারা শুধু তাদের মুরুব্বিকে খুশি করতে চায়। এদেরকে কেউ কী মানুষ বলে? এরাতো অমানুষ। এতো মানুষ মারা যাচ্ছে, সব ধরনের মানবাধিকার নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। কিন্তু এরা একটি কথাও বলে না।
শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) সকালে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, কিছু বিপথগামী লোক নির্বাচন বানচাল করতে চায়। কারণ তারা নির্বাচনে এলে ভোট পায় না। তারা ২০০৮ সালে নির্বাচনে গিয়ে ২৯টি আসন পেয়েছে। এরপর ২০১৮ সালে নির্বাচন করে ৭টি আসন পেয়েছে। তারা এবার হিসাব করে দেখেছে নির্বাচনে এলে কোনো ভোট পাবে না। তাই নির্বাচন বানচাল করতে চায়।
ড. মোমেন বলেন, শেখ হাসিনার সঙ্গে কেউ নির্বাচনে এসে পারবে না। কারণ শেখ হাসিনাকে জনগণ চায়। এজন্য এরা (বিএনপি) ভয় পেয়ে গেছে। কারণ তারা দেখেছে তাদের গ্রহণযোগ্যতা নেই। তারা মানুষের কথা বলে না। মানুষের গায়ে যেগুলো লাগে, সেগুলো নিয়ে কথা বলে না। তারা বোঝে তাদের নেত্রীকে জেল থেকে বের করতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, তাদের নেত্রীকে শেখ হাসিনার সরকার জেলে পাঠায়নি। তাদের প্রিয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার জেলে পাঠিয়েছে। এখানে আমাদের কিছু করার নেই। আমরা বিচার ব্যবস্থার উপর হস্তক্ষেপ করতে পারবো না।
সারাদেশে ওসিদের বদলি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এখন সবকিছু ইসির হাতে। ইসি মনে করেছে ওসিদের বদলি করলে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। তাই তারা ওসিদের একযোগে বদলি করেছে। এখানে আমার কোনো অভিমত নেই। আমরাও চাই সুষ্ঠু নির্বাচন।
এরপর মন্ত্রী সিলেট সিটি করপোরেশনের টুকেরগাঁও জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন।
এ সময় মসজিদের মুসল্লিদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, এই মুহূর্তে আমি কিছু করতে পারবো না। তবে এটা বলতে পারি শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থাকলে অনেক কিছু হবে। আমাকে বলতে হবে না, আপনরাই দেখবেন। শেখ হাসিনার সরকার জনগণের সরকার। মানুষের মঙ্গলের সরকার। এজন্য শেখ হাসিনার সরকারকে আবারো নির্বাচিত করতে হবে।
জুমার নামাজ শেষে মন্ত্রী বিভিন্ন এলাকা-মহল্লায় ভোটারদের সঙ্গে কুশলাদি বিনিময় করেন। এ সময় স্থানীয় নেতাকর্মীরা মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।