• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায়

নাক দিয়ে টাইপ করে বিশ্ব রেকর্ড

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২ জুন ২০২৪  

সাধারণত হাতের আঙুল দিয়েই কম্পিউটারের কিবোর্ডে টাইপ করা হয়। কিন্তু কেউ কেউ কৌতূহলের বশে বা শারীরিক প্রতিবন্ধকতার জন্য এক্ষেত্রে পায়ের আঙুল ব্যবহার করে। তবে কেবল কৌতূহলের বশেই এবার এক ভারতীয় হাত ও পা-এর বদলে নাক দিয়ে কিবোর্ডে টাইপ করে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন।

রোববার (২ জুন) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে জানায়, শুক্রবার (৩১ মে) ভারতীয় নাগরিক বিনোদ কুমার চৌধুরী (৪৪) টানা তৃতীয়বারের মতো নিজের করা পূর্বের সব বিশ্ব রেকর্ডকে ছাড়িয়ে দ্রুততম সময়ে নাক দিয়ে টাইপ করে অবাক করেছেন বিশ্বকে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিনোদ কুমার এর আগেও একইভাবে কিবোর্ডে টাইপ করে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন। ২০২৩ সালে তিনি প্রথমবারের মতো নাক দিয়ে টাইপ করে গিনিস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করেন। সে সময় কিবোর্ডে তার টাইপের গতি ছিল ২৭.৮ সেকেন্ড।

দ্বিতীবার তিনি আরও কম সময়ে নিজের করা বিশ্ব রেকর্ডকে ছাড়িয়ে মাত্র ২৬.৭৩ সেকেন্ডের টাইপিং স্পিড নিয়ে গিনিস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করেন। সর্বশেষ গত শুক্রবার (৩১ মে) তিনি যখন বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন, তখন তার টাইপের গতি ছিল মাত্র ২৫.৬৬ সেকেন্ড, যা তার আগের করা সব রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে।

গিনিস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে (সাবেক টুইটার) একটি ভিডিও শেয়ার করেছে। এতে দেখা যায়, বিনোদ কুমার তার নাককে কিবোর্ডের কাছে লাগিয়ে দ্রুতগতিতে ইংরেজি বর্ণ টাইপ করে যাচ্ছে। ভিডিওটি  বিনোদের দ্বিতীয়বারের মতো নাক দিয়ে টাইপ করে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার সময়কার।

এ প্রতিভার জন্য বিনোদ ভারতজুড়ে ‘টাইপিং ম্যান’ নামে ব্যাপক পরিচিত।