• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায়

যে চমক থাকছে ‘ফিমেল ৪’, অমি যা জানালেন

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২৪  

ছোটপর্দার জনপ্রিয় নির্মাতাদের একজন কাজল আরেফিন অমি। এ নির্মাতার জনপ্রিয় ড্রামা সিরিজ ফিমেল-এর নতুন কিস্তি ‘ফিমেল ৪’ আসছে ঈদুল আজহায়। শহরের ব্যাটারি গলির গল্প নিয়ে নির্মিত এ সিরিজের ৩টি কিস্তি আগে এসেছে নাটক হিসেবে। তবে ‘ফিমেল ৪’ নাটক নয়, আসছে ওয়েব ফিল্ম আকারে।
মুক্তি পাবে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বঙ্গতে। সম্প্রতি বঙ্গর ফেসবুক পেজে মুক্তি পায় ‘ফিমেল ৪’-এর ফার্স্ট লুক। তাতে দেখা যায় জিয়াউল হক পলাশ, মারজুক রাসেল, শরাফ আহমেদ জীবন, পাভেল, শিমুল, সুমন পাটোয়ারি, শিবলু মৃধা প্রমুখ। তাতে চমক হিসেবে দেখা গেছে জনপ্রিয় অভিনেতা ইরেশ যাকেরকে।

‘ফিমেল ৪’ ওয়েব ফিল্ম নিয়ে অমি বলেন, ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’, ‘হোটেল রিল্যাক্স’ এর পাশাপাশি ‘ফিমেল’ ড্রামা সিরিজটা করতে পারাটাও দারুণ অনুপ্রেরণার। এর চরিত্রগুলোও আলাদাভাবে দর্শকদের কাছে পরিচিত। দর্শকরা চায় এটার নতুন কিস্তি দেখতে। তাদের অনুপ্রেরণায় আমি সাহস পেয়েছি। তাই আরো বড় পরিসরে ‘ফিমেল ৪’ তৈরি করেছি বঙ্গর সঙ্গে।

‘ফিমেল’ নাটকের আগের তিন কিস্তিই ইউটিউবে দর্শকের মাতিয়েছে। তাই এবার পুরোদস্তুর ওয়েব ফিল্ম হিসেবে ফিমেল ৪ আসছে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে। এ প্রসঙ্গে অমি বলেন, ২০১৪ সাল থেকে টিভি, ইউটিউবের পর এখন ওটিটিতেও কাজ করছি। প্রতিনিয়ত নিজেকে প্রস্তুত করছি, শিখছি, ভুল করছি, আবার নিজেকে সংশোধন করছি। ওটিটিতে আমার কাজ দেখতে গেলে টাকা দিতে হয়। নতুন প্ল্যাটফর্ম, নতুন নিয়ম। তাই কাজটিও আমি ওই রকম যত্ন সহকারে করি। আপনারা যদি টাকা দিয়ে ভালো কাজ দেখেন তাহলে আমাদের দেশে ভালো কাজের সংখ্যা আরো বেড়ে যাবে। নির্মাতারা বড় পরিসরে কাজ করার সাহস পাবে।