• বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪৩১

  • || ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার

শিশু শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা: শিক্ষক আমিনুল গ্রেফতার

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২৯ আগস্ট ২০২৩  

খাগড়াছড়িতে শিশু শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যার মামলায় গ্রেফতার হয়েছে শিক্ষক আমিনুল ইসলাম। গতকাল সোমবার রাত সোয়া আটটার দিকে চট্টগ্রামের চাঁটগাও আবাসিক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) সকাল খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আরিফুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘৃণ্য এই হত্যাকাণ্ডের অভিযোগে গত শুক্রবার রাতে নিহত শিশুর বাবা সারোয়ার হোসেন মামলা করেন। এরপর পুলিশের তিনটি টিম কাজ শুরু করে। অবশেষে মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের সূত্র ধরে পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে শিক্ষক আমিনুল।

এর আগে গত রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে আবির হোসেন (৮) নামের শিক্ষার্থীকে মৃত অবস্থায় নিয়ে আসা হয়। নিহত আবির হোসেন পানছড়ির আইয়ুব নগর এলাকার সরোয়ার হোসেনের ছেলে।

ভুয়াছড়ি বায়তুল আমান দাখিল মাদরাসার অধ্যক্ষ ফরিদুর রহমান বলেন, ‘আবির পড়া না পারায় হাফেজ আমিনুল ইসলাম সকালে ও বিকেলে দুই দফায় মারধর করেন। বিকেলে মারধরের পর শিশুটি জ্ঞান হারায়। পরে দুই ছাত্রের সহযোগিতায় আবিরকে হাসপাতালে নিয়ে যান আমিনুল। শিশুটি মারা গেছে বুঝতে পেরে আবিরের লাশ ফেলে আমিনুল পালিয়ে যান।’

নিহত আবির হোসেনের চাচা দেলোয়ার হোসেন জানান, এক মাস আগে ভাতিজাকে খাগড়াছড়ি সদরের ভুয়াছড়ি রাজশাহী টিলা এলাকার বায়তুল আমান ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসার হেফজ বিভাগে ভর্তি করা হয়েছিল।