• শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪৩১

  • || ০৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা

১২ বছরের শিশুর হাতে তিন বছরের শিশু খুন

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০২২  

১২ বছরের শিশু হিজবুল্লাহ আব্বাসকে দুরন্তপনার জন্য বকা দিয়েছিলেন প্রতিবেশী তিন বছরের শিশু সুমাইয়ার বাবা মিলন খান।

সেই আক্রোশে সুমাইয়াকে মোবাইল ফোন চার্জারের তার জড়িয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে হিজবুল্লাহ আব্বাস।

বুধবার সন্ধ্যার পর হিজবুল্লাদের বাড়ি থেকে সুমাইয়া মাহী নামের তিন বছরের শিশুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছেন রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানা পুলিশ।

শিশু সুমাইয়াকে হত্যার অভিযোগে হিজবুল্লাহকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হৃদয়বিদারক এই ঘটনায় স্তম্ভিত পুলিশসহ পুরো এলাকাবাসী। সুমাইয়ার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাতেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গোদাগাড়ী থানার ওসি কামরুল ইসলাম জানান, গোদাগাড়ীর রিশিকুল ইউনিয়নের আলোকছত্র গ্রামের মিলন খান দিন কয়েক আগে দুরন্তপনার জন্য প্রতিবেশী স্কুল শিক্ষক জাহানারা বেগমের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলে হিজবুল্লাহ আব্বাসকে বকা দিয়েছিলেন। বুধবার হিজবুল্লাহকে বাড়িতে রেখে তার মা স্কুলে চলে যান।

বিকেলের দিকে অপর দুই শিশুর সঙ্গে সুমাইয়া মিলনদের বাড়ির আঙ্গিণায় খেলছিল। এ সময় দুই শিশুকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়ে সুমাইয়াকে ঘরের ভেতরে নিয়ে গিয়ে মোবাইল ফোনের চার্জারের তার গলায় জড়িয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে হিজবুল্লাহ।

 সুমাইয়াকে হত্যার পর একটি ছোট বস্তার ভেতর ভরে মুখ বন্ধ করে ঘরের চৌকির নিচে ঢুকিয়ে দিয়ে হিজবুল্লাহ দিব্যি বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছিল।

এদিকে সন্ধ্যা হলেও প্রতিবেশী মিলন খান শিশুকন্যা সুমাইয়াকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না। এরই মধ্যে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সুমাইয়া অন্যদের সঙ্গে প্রতিবেশীর বাড়িতে খেলছিল।

এলাকাবাসী হিজবুল্লাদের ঘর তল্লাশি করে চৌকির নিচ থেকে সুমাইয়ার বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেন।

খবর পেয়ে গোদাগাড়ী থানা পুলিশ রাত সাড়ে আটটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে সুমাইয়ার লাশ উদ্ধার ও হিজবুল্লাহকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। জিজ্ঞাসাবাদে হিজবুল্লাহ শিশু সুমাইয়াকে হত্যার কথা স্বীকার করেন।

ওসি জানান, শিশু সুমাইয়াকে হত্যার পরও হিজবুল্লাহর মধ্যে অপরাধ সংঘটনের কোন ভাবান্তর নেই।

ওসি আরও জানান, শিশু সুমাইয়ার বাবা মিলন খান বাদী হয়ে বুধবার রাতে গোদাগাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। বৃহস্পতিবার সুমাইয়ার লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হবে ও গ্রেফতার হিজবুল্লাকে আদালতে পাঠানো হবে।