• সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
আব্দুল কাদের জিলানীর (র.) মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ নির্বাচনে যথাযথ দায়িত্ব পালন করায় ডিসিদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর ভোক্তাদের যেন হয়রানি হতে না হয়, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে বাজারে নজরদারি-মজুত ঠেকাতে ডিসিদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে সশস্ত্র বাহিনী যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে বেইলি রোডে অগ্নিকান্ড কবলিত ভবনে ফায়ার এক্সিট না থাকায় হতাশ নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ‘কোনো একটি জিনিস না খেলে রোজা হবে না, এ মানসিকতা পাল্টাতে হবে’ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই

৪ বছর ধরে জব্দ হওয়া ১৯ কোটি টাকার মাদক ধ্বংস

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর ২০২৩  

জয়পুরহাট সীমান্তে গত ৪ বছর ধরে জব্দ হওয়া ১৯ কোটি টাকা মূল্যের বিপুল পরিমান মাদ্রকদ্রব্য ধ্বংস করেছে বিজিবি।

সোমবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে জয়পুরহাট-২০ বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদরের প্রশিক্ষণ মাঠে রোলার দিয়ে এসব মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।

বিজিবির দিনাপুর সেক্টরের তত্বাবধানে ও জয়পুরহাট-২০ বিজিবির আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ ধ্বংস প্রক্রিয়ার উদ্বোধন করেন বিজিবির রংপুর রিজিয়নের কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খোন্দকার শফিকুজ্জামান।

ধ্বংস করা মাদকদ্রব্যের মধ্যে রয়েছে, ১ লাখ ২৩ হাজার ২১৬ বোতল ফেনসিডিল, লুজ ফেনসিডিল সাড়ে ৩২ লিটার, ইয়াবা ৪৩ হাজার ৪৬৯ পিস, বিভিন্ন নেশাজাতীয় ট্যাবলেট ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৮৬৭ পিস, প্রায় ১০ হাজার বোতল মদ, গাজা ৩৮৫ কেজি, হেরোইন ৩৯২ গ্রাম, এমকেডিল, ফেয়ারডিল ১৯ হাজার ১০২ বোতল, ইস্কাপ সিরাপ, বিয়ার, কফিডিল, ফেন্সিগ্রিপ ও যৌন উত্তেজক সিরাপ সাড়ে ৭ হাজার বোতল ও বিড়ি ৬৬৩ প্যাকেট।

এসবের আনুমানিক বাজারমূল্য ১৯ কোটি টাকারও বেশি বলে জানিয়েছে বিজিবি। পরে সেগুলো আগুনে পুড়িয়ে ও মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিজিবির রংপুর রিজিয়নের কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খোন্দকার শফিকুজ্জামান, দিনাজপুর সেক্টর কমান্ডার কর্নেল রাশেদ আসগর, জয়পুরহাট জেলা প্রশাসক সালেহীন তানভীর গাজী, জয়পুরহাট-২০ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ তানজিলুর রহমান ভূঁইয়া, জয়পুরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মামুন খান চিশতী, দিনাজপুরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গিয়াস উদ্দীন ও জয়পুরহাট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক রফিকুল ইসলাম, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ূন কবিরসহ বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তারা।