• বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪৩১

  • || ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার

যুক্তরাষ্ট্রে বঙ্গবন্ধুর খুনি অবস্থান নিয়ে কংগ্রেসম্যানের ক্ষোভ

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

মার্কিন রিপাবলিকান কংগ্রেসম্যান অ্যান্থনি পি ডি’ এসপোসিটো বলেছেন যে তিনি স্টেট ডিপার্টমেন্ট এবং হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্টের কাছে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি রাশেদ চৌধুরী কীভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন তা জানতে চাইবেন।

তিনি বলেন, ‘ক্যাপিটল হিলে ফিরে আসার পর, আমি আমার সহকর্মীদের, স্টেট ডিপার্টমেন্ট ও হোমল্যান্ড ডিপার্টমেন্টের সাথে কথা বলবো। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি রাশেদ চৌধুরী কীভাবে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন, তা আমি জিজ্ঞাসা করবো।’

হোমল্যান্ড সিকিউরিটি সম্পর্কিত মার্কিন কংগ্রেস কমিটির সদস্য এবং জরুরি ব্যবস্থাপনা ও প্রযুক্তি বিষয়ক সাব-কমিটির চেয়ারম্যান অ্যান্থনি নিউইয়র্কে একটি মতবিনিময় সভায় বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।

শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় পাওয়া এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশ প্রবাসীদের সংগঠন ‘ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ’ বৃহস্পতিবার লং আইল্যান্ডের একটি পার্টি হলে এ সভার আয়োজন করে। সভায় কংগ্রেসম্যান বলেন, ‘মাতৃভূমির বিরুদ্ধে বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অপপ্রচারে বাংলাদেশি প্রবাসীদের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা দেখে আমিও বিচলিত হয়ে পড়ি, কারণ আমার নির্বাচনি এলাকার অনেক মানুষই বাংলাদেশি আমেরিকান।’

‘ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ’-এর অন্যতম সংগঠক সাংবাদিক লাবলু আনসার সভায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি রাশেদ চৌধুরীর প্রসঙ্গ তোলেন। এর জবাবে কংগ্রেসম্যান উল্লেখ করেছেন যে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার অ্যাটর্নি জেনারেল বিল বারকে বিষয়টি দেখতে বলেছিলেন। ট্রাম্প ২০২০ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে হেরে যাওয়ার কারণে এই বিষয়ে কোনও উন্নয়ন হয়নি, তিনি উল্লেখ করেছেন। তিনি রাশেদ চৌধুরী ইস্যুতে বাংলাদেশি আমেরিকানদের প্রতি তাকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সরবরাহ করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র রাশেদ চৌধুরীর মতো কোনও বড় অপরাধী বা মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীর জন্য নিরাপদ আশ্রয়স্থল হতে পারে না। সূত্র: বাসস