• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

  • || ২৩ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
বিজিবিদের চেইন অব কমান্ড মেনে কাজ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর এখানে এলেই মনটা ভারী হয়ে যায়- বিজিবি দিবসে প্রধানমন্ত্রী বিশ্বমানের স্মার্ট বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই বিজিবিকে বিজিবি দিবসের কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আব্দুল কাদের জিলানীর (র.) মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ নির্বাচনে যথাযথ দায়িত্ব পালন করায় ডিসিদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর ভোক্তাদের যেন হয়রানি হতে না হয়, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে বাজারে নজরদারি-মজুত ঠেকাতে ডিসিদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে সশস্ত্র বাহিনী যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে

আজ হয়ে যাক কাঁকড়া ফ্রাই, দেখুন রেসিপি

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

আমাদের দেশে কাঁকড়া খাওয়ার কথা আগে চিন্তাও করা হত না! কাল ক্রমে বিদেশের মানুষের কাঁকড়া খাবারের কথা জানলো এবং খাবার শুরু করলো। এদিকে যারা বছরে একবার হলেও কক্সবাজারে যেতেন, তারা সেখানে কাঁকড়া ফ্রাই খেয়ে আসতেন।
হ্যাঁ, কাঁকড়ায় স্বাদ আছে ভালো, অনেকটা চিংড়ির মতো, সফট এবং কিছুটা হালকা সুমিষ্ট স্বাদের কাঁকড়া রোয়া! এর স্বাদ একবার নেয়া উচিত এবং নিজেদের বাসায় একবার রান্না করা দরকার। তাই আজ বাসায় রান্না করে কাঁকড়া স্বাদ নিয়ে নিন।

তো চলুন দেরি না করে দেখে নিই; কাঁকড়া ফ্রাই করার রেসিপিটি-

উপকরণ

৫টি কাঁকড়া
২টি আলু
১ চা চামচ ধনে
১ চা চামচ জিরা
১ চা চামচ মৌরি
৩টি পেঁয়াজ
১ চা চামচ গ্যালিক পেস্ট
১ চা চামচ আদা পেস্ট
২টি টমেটো
৩টি শুকনো লাল লঙ্কা
৭টি কাঁচা মরিচ
১/২ চা চামচ কালো মরিচ
১ চা চামচ দারুচিনি, লবঙ্গ এবং সবুজ ক্যাড্রাম
রান্নার জন্য সরিষার তেল প্রয়োজন মতো
কাশ্মীরি মরিচ গুঁড়ো, লবণ এবং হলুদ- প্রয়োজন মতো

প্রণালী

পরিষ্কার করা কাঁকড়ার উপর লবণ এবং হলুদ ছিটিয়ে দিন। একটি প্যানে তেল গরম করুন এবং ১টি কাটা পেঁয়াজ ভাজুন। ১ মিনিট পর আদা বাটা ও রসুন বাটা দিন। কাঁচা গন্ধ না যাওয়া পর্যন্ত ভাজুন।

প্যানে জিরা, ধনে বীজ যোগ করুন। একটানা ভাজুন। এছাড়াও কালো মরিচ এবং পুরো গরম মসলার সঙ্গে শুকনো লাল মরিচ যোগ করুন। রান্নাঘরের সর্বত্র সুন্দর সুগন্ধ না হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। প্রয়োজনে সামান্য পানি ছিটিয়ে ভাজুন।

মসলা ভালো করে ভাজা হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে মৌরির বীজ যোগ করুন। একত্রিত করতে নাড়ুন এবং এটিকে ঠাণ্ডা করুন। তারপরে কয়েকটি কাঁচা মরিচসহ একসঙ্গে পিষে নিন।

একই প্যানে, আরো কিছু তেল গরম করুন এবং প্রথমে কাঁকড়ার নখগুলো কমলা না হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। তাপ থেকে সরান এবং একপাশে রাখুন।

এরপর কাঁকড়ার শরীর বাদামি না হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। একপাশে রাখুন। একই প্যানে, কিছু তেজপাতা যোগ করুন তারপর বাকি ২টি পেঁয়াজ দিন। বাদামী হয়ে গেলে তাতে মসলা পেস্ট দিন। ৪ মিনিট ভাজুন।

লবণ, হলুদ ও কাশ্মীরি মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দিন। পানির ছিটা দিয়ে ভাজুন। টমেটোকে পেস্টে পিষে প্যানে যোগ করুন। মসলা বাদামী হয়ে এলে সেদ্ধ আলুর কিউব যোগ করুন। একত্রিত করতে লাড়ুন।

এরপরে ভাজা কাঁকড়া ভালো করে মেশান যাতে কাঁকড়ার টুকরোগুলো মসলা দিয়ে ভালোভাবে লেপে যায়। এভাবে ১০ মিনিট ধরে রান্না করুন। প্যানে লেগে থাকা মসলা এড়াতে আপনাকে কয়েক টেবিল চামচ পানি যোগ করতে হতে পারে। ১০ মিনিটের পরে, মশলা পরীক্ষা করুন। কয়েকটি ধনে পাতা ছিটিয়ে আঁচ থেকে নামিয়ে নিন। এবার গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশেন করুন কাঁকড়া ফ্রাই।