• সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৮ রজব ১৪৪৪

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন সারদায় প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শিশুদের জন্য নিরাপদ মাতৃভূমি করতে সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ প্রধানমন্ত্রী আরসিসির ৭ উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন আজ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন ৪৬০ পুলিশ কর্মকর্তা বিএনপির দুর্নীতি নিয়ে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ফেসবুক স্ট্যাটাস রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী ২৫ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন রোববার ডিজিটালাইজেশনে বাংলাদেশে বিপ্লব ঘটে গেছে : প্রধানমন্ত্রী আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে : বিদায়ি সুইস রাষ্ট্রদূতকে প্রধানমন্ত্রী

ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২ জানুয়ারি ২০২৩  

মাদারীপুরে দেখা করার কথা বলে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের ঘটনায় ২ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার (১ জানুয়ারি) রাতে রাজৈর উপজেলার কুন্ডুবাড়ি এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে গত শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সদর ও রাজৈর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকা সাখারপাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হলেন- রাজৈর উপজেলার পশ্চিম রাজৈর এলাকার এসকান্দার ফকিরের ছেলে শামীম ফকির ওরফে হাসান (২০) ও পাট্টু মোল্লার ছেলে ইমন মোল্লা ওরফে রাব্বি (১৬)।

ভুক্তভোগী ও পুলিশ জানায়, ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কয়েকদিন আগে মোবাইলের মাধ্যমে পরিচয় হয় শামীম ফকির ওরফে হাসান নামের ওই তরুণের সঙ্গে। পরে তারা প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। গত শনিবার বিকেলে দেখা করার কথা বলে বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে ওই ছাত্রীকে সাখারপাড় ব্রিজ এলাকায় ডেকে নিয়ে যায় হাসান। এ সময় হাসানের সঙ্গে ছিল তার বন্ধু ইমন মোল্লা ওরফে রাব্বি। দেখা করতে গেলে ওই ছাত্রীকে জোর করে ব্রিজের পাশের একটি জঙ্গলে তুলে নিয়ে পালাক্রমে একাধিকবার ধর্ষণ করে দুই বন্ধু। একাধিকবার ধর্ষণের ফলে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে দুই বন্ধু মেয়েটিকে তার বাড়ির সামনে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। মেয়েটিকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় পরিবারের স্বজনরা রাতে সাড়ে ১১টার দিকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। পরে ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে রাজৈর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে রাজৈর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, ছেলে দুটি আগে আসল পরিচয় গোপন রেখে মেয়েটির সঙ্গে কথা বলে ডেকে নিয়ে যায়। আমরা তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে ওই দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করি। তাদেরকে আজ আদালতে পাঠানো হবে।