• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৯

  • || ১৪ মুহররম ১৪৪৪

মাদারীপুর দর্পন

মাঙ্কিপক্স ঠেকাতে করণীয় জানালো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২২  

নতুন আতঙ্কের নাম মাঙ্কিপক্স। যা অনেকের জন্য এখন বড় দুশ্চিন্তার কারণ। যদিও চিকিৎসকেরা অভয় দিয়ে বলছেন যে, এত বেশি উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু নতুন এই রোগ নিয়ে তো নিশ্চিন্ত থাকা দায়।

এরই মধ্যে প্রায় ৩০টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে মাঙ্কিপক্স। পুরো বিশ্বে প্রায় ৭৮০ জন আক্রান্ত হয়েছে এই ভাইরাসে। যার অধিকাংশেই ইউরোপের নানা দেশের বাসিন্দা। এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা যত বাড়ছে, ততই সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। সেই সংস্থার অতিমারি বিশারদ মারিয়া ভ্যান কারখোভ জানিয়েছেন মাঙ্কিপক্স থেকে নিজেকে দূরে রাখার উপায়।

এখন সব দেশকেই সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার স্বাস্থ্যকর্তারা। তবে যে সব দেশে বেশি ছড়াচ্ছে, তাদের এখনই কিছু পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। জেনে নিন সেগুলো কী কী-

>> প্রথম পদক্ষেপ হলেো মাঙ্কিপক্স সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে হবে। এটি কীভাবে ছড়ায় ও কতটা গুরুতর তা সবাইকে জানতে হবে।

>> দ্বিতীয়টি হলো মাঙ্কিপক্সের উপসর্গসমূহ শরীরে প্রকাশ পেলে নিজ থেকেই আইসোলেশনে যেতে হবে। এতে করে আপনার পরিবার ও অন্যান্যরা সংক্রমণ থেকে মুক্তি পাবে।

>> তৃতীয়টি হলো, ফ্রন্টলাইন স্বস্থ্যকর্মীদের অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে। যারা এ ধরনের রোগীর পরিচর্যা করছেন কিংবা পরীক্ষার জন্য নমুনা নিচ্ছেন তারা অবশ্যই ব্যক্তিগত সুরক্ষা বজায় রাখবেন।

>> চতুর্থটি হলো প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা ব্যবহার করতে হবে সবাইকে। যারা বিভিন্ন সংক্রমণের ঝুঁকিতে আছে, তাদের উচিত অ্যান্টিভাইরাল ও ভ্যাকসিন গ্রহণ করা।

>> সর্বশেষে পেদক্ষেপ হলো, কোনো উপসর্গ দেখলেই চিকিৎসকেরন পরামর্শ নিতে হবে। দ্রুত রোগ নির্ণয় করে এর চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে।

মাঙ্কিপক্সের বেশিরভাগ রোগীই জ্বর, শরীরে ব্যথা, ঠান্ডা ও ক্লান্তি অনুভব করেন। আরও গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তিদের মুখে ও হাতে ফুসকুড়ি-ক্ষত হতে পারে যা শরীরের অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

মাঙ্কিপক্স গুটিবসন্তের সঙ্গে সম্পর্কিত, তবে এর লক্ষণগুলো হালকা। জানা গেছে, গুটিবসন্তের ভ্যাকসিনগুলোও মাঙ্কিপক্সের বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষামূলক। তাই মাঙ্কিপক্স সংক্রমণে আতঙ্কিত না হয়ে বরং সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।