• শনিবার   ২১ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৯

  • || ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
জুনেই পদ্মা সেতুতে দাঁড়িয়ে মানুষ পূর্ণিমার চাঁদ দেখবে: কাদের শেখ হাসিনা প্রত্যাবর্তন করাতেই উন্নয়ন ও অর্জনে বাংলাদেশ বিশ্বের বিস্ময়: সেতুমন্ত্রী প্রখ্যাত সাংবাদিক ও সাহিত্যিক আবদুল গাফফার চৌধুরী আর নেই মানবতাবিরোধী অপরাধী আজিজসহ ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড ভ্যাকসিনেশনে আমেরিকার চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ৫০ বছরে সবচেয়ে সৎ রাজনীতিকের নাম শেখ হাসিনা: কাদের নজরুলের ‘বিদ্রোহী’ এক অনন্য রচনা: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী ১ লাখ ৯২ হাজার হেক্টর ভূমিতে বনায়ন করা হবে: পরিবেশমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের আলোয় বাংলাদেশ আজ আলোকিত: ওবায়দুল কাদের সবাইকে সাশ্রয়ী হতে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

মাদারীপুরে বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১২ মে ২০২২  

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ
মাদারীপুরে পাঁচ লিটার সয়াবিন তেলের মূল্য বোতলে ৭৬০ টাকা লেখা থাকলেও তার খুচরা ব্যবসয়ীদের কাছে পাইকারী বিক্রি হচ্ছে ৯৩০ টাকায়। নির্ধারিত দামের চেয়ে ১৭০ টাকা বেশি মূল্যে পাঁচ লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি করায় এক ডিলারকে গুনতে হলো ৫০ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা।

বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে সদর উপজেলার তাঁতিবাড়ি বাজারে অভিযান পরিচালনা করে জরিমানা আদায় করেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মাদারীপুর পৌরসভা এলাকার সিফাত এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মফিজুল ইসলাম তার গুদামে ঈদের আগে সয়াবিন তেল মজুদ করে রাখেন। হঠাৎ করে তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি গুদাম থেকে সিটি গ্রুপের সয়াবিন তেল বাজারে খুচরা দোকানীদের কাছে বর্ধিত দামে বিক্রি শুরু করেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে সিফাত এন্টারপ্রাইজের একটি ভ্যানে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপক বিল্লাল ফকির তাঁতিবাড়ি এলাকার যান। পরে তিনি তাঁতিবাড়ি বাজারের দোকানদারদের কাছে ৭৬০ টাকার ৫ লিটারের সয়াবিন তেলের দাম ৯৩০ টাকায় বিক্রি শুরু করেন। বিষয়টি বুঝতে পেরে স্থানীয়রা ডিলারের ব্যবস্থাপক বিল্লালকে আটক করেন। পরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরকে খবর দিলে তারা ডিলারের ভ্যানে থাকা ৬৭২ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করেন। এ সময় সিফাত এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মফিজুল ইসলামকে ৫০ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা আদায় করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস। পরে জব্দ হওয়া তেল খুচরা বাজারে নায্য দামে ভোক্তাদের কাছে বিক্রি করা হয়।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস বলেন, ‘ওই ডিলারের মালিক ঈদের আগে তেল মজুদ করে রাখেন এবং তেলের যেই দাম ছিল তার থেকে ১৭০ টাকা বেশি দরে তিনি খুচরা বাজারে বিক্রি করছেন। যা ভোক্তা অধিকার আইনের ৪০ ধারায় দ-ণীয় অপরাধ। যেহেতু তিনি মজুদ করে রেখেন তাই ৪৫ ধারায় অভিযুক্ত করে ডিলার মালিককে আমরা ৫০ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করেছি। এ ছাড়াও তার প্রতিষ্ঠানটি তিন দিন বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছি। ডিলারদের এই সিন্ডিকেটর ভাঙতে নিয়মিত বাজার মনিটরিংসহ আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।