• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৭ ১৪২৯

  • || ১৪ মুহররম ১৪৪৪

মাদারীপুর দর্পন

নির্বাচনে আগ্রহী বিএনপির তৃণমূল, শীর্ষ নেতাদের অনীহা

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২ জুলাই ২০২২  

দলীয়ভাবে সবধরনের নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত না থাকলেও ভোটের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছেন বিএনপির তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। তবে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়ায় তৃণমূল নেতাকর্মীদের বাধা দিচ্ছেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা।

তৃণমূল নেতারা বলছেন, জাতীয় কিংবা স্থানীয় নির্বাচনে ক্রমাগত পরাজয় বিএনপির সিনিয়র নেতাদের মাঝে নির্বাচন ভীতি সৃষ্টি করেছে। গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে একটি দল যখন জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে তখন তাদের নির্বাচন ও গণতন্ত্রের প্রতি অনীহা সৃষ্টি হয়। বিএনপির সিনিয়র নেতাদের ভেতর সেই লক্ষণ দেখা যাচ্ছে। 

সিলেট জেলা বিএনপির এক নেতা বলেন, বিএনপি সিনিয়র নেতারা ধরেই নিয়েছেন বিএনপি প্রার্থীদের ভোট যুদ্ধে দিয়ে লাভ নেই। বিএনপির ব্যানারে আমাদের নির্বাচন করার আগ্ৰহ থাকলেও সাড়া দেন না সিনিয়র নেতারা। তারা নির্বাচনকে এখন লস প্রজেক্ট মনে করছেন।

বিএনপি থেকে পদত্যাগকারী একাধিক নেতা জানান, রাজনৈতিক কৌশল নির্ধারণে ব্যর্থতা, তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রতি অবহেলা, বিভিন্ন জেলা-উপজেলা-ইউনিয়ন পর্যায়ের কমিটিগুলো নিয়ে নানা ধরণের অসন্তোষ, পদবাণিজ্যসহ একাধিক কারণে বিএনপির রাজনীতির প্রতি আগ্রহ হারাচ্ছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

তারা আরো জানান, বিএনপির বড় সমস্যা হলো, মাঠের ত্যাগী ও পরীক্ষিত কর্মীদের অবমূল্যায়ন করা। বিপদের দিনে কোনো রকম সহযোগিতা করে না বিএনপির হাইকমান্ড। যার ফলে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের প্রতি আস্থা হারাচ্ছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, দীর্ঘ এক যুগ সময় পেলেও বিএনপি তৃণমূলের রাজনীতি পুনর্গঠনে কোনো পরিকল্পনা গ্রহণ করেনি। দলটির শীর্ষ নেতাদের ভুল সিদ্ধান্তের কারণে আজকে বিএনপির এ দুর্দশা। আজ বিএনপির ব্যানারে তৃণমূল নেতাকর্মীরা নির্বাচন করতে চাইলেও সিনিয়র নেতারা অনীহা প্রকাশ করেন। এজন্য তৃণমূল নেতাদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হচ্ছে। যার ফলে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা নিষ্ক্রিয় হওয়ায় বিএনপি জনবিচ্ছিন্ন দলে পরিণত হচ্ছে।