• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
বিজিবিদের চেইন অব কমান্ড মেনে কাজ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর এখানে এলেই মনটা ভারী হয়ে যায়- বিজিবি দিবসে প্রধানমন্ত্রী বিশ্বমানের স্মার্ট বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই বিজিবিকে বিজিবি দিবসের কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আব্দুল কাদের জিলানীর (র.) মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ নির্বাচনে যথাযথ দায়িত্ব পালন করায় ডিসিদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর ভোক্তাদের যেন হয়রানি হতে না হয়, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে বাজারে নজরদারি-মজুত ঠেকাতে ডিসিদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে সশস্ত্র বাহিনী যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে

বিএন‌পি‌কে আরও ৫ বছর অপেক্ষা কর‌তে হ‌বে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

সদ্য শেষ হওয়া সংসদ নির্বাচনে না আসার জন্য বিএনপির সমালোচনা করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। দলটির নেতাকর্মীরা হতাশ হয়ে পড়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

রোববার (১১ ফেব্রুয়া‌রি) রাজধানীর এক‌টি  হো‌টে‌লে এক অনুষ্ঠান শে‌ষে সাংবা‌দিক‌দের প্রশ্নের উত্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আসলে নির্বাচনের পর বিএনপির নেতাকর্মীরা অত্যন্ত হতাশ এবং তাদের নেতৃত্ব প্রশ্নবিদ্ধ। তারা যে আবার নির্বাচনের কথা বলছে, সে জন্য তাদের পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হবে। নির্বাচিত বর্তমান সরকারের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার পর আবার নির্বাচন হবে।’

‘বিএনপির কর্মসূচি অন্য কিছু নয়। স্টার্ট বন্ধ হওয়া পুরনো গাড়ি স্টার্ট দেওয়ারই নামান্তর।’

ইন্টারন্যাশনাল মেরিটাইম অর্গানাইজেশন-আইএমও কাউন্সিলের সদস্য পদে বাংলাদেশের নির্বা‌চিত হওয়ায় অনুষ্ঠা‌নের আয়োজন ক‌রে নৌ প‌রিবহন মন্ত্রণালয়।

আইএমও কাউন্সিলে বাংলাদেশের নির্বাচিত হওয়া সম্মান ও মর্যাদার উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, এটি অন্য অনেক দেশের তুলনায় সমুদ্র বাণিজ্যে আমাদের এগিয়ে থাকার স্বীকৃতি।

তি‌নি বলেন, আইএমও কাউন্সিলে বাংলাদেশের নির্বাচিত হওয়া দেশকে সমুদ্র বাণিজ্য ক্ষেত্রে আরও এগিয়ে নিতে সহায়ক হবে।

নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মোস্তফা কামাল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থয়ী কমিটির সভাপতি  ড. এ কে আব্দুল মোমেন।