• শনিবার ২০ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

  • || ১২ মুহররম ১৪৪৬

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ

শিশুর চোখ ভালো রাখবে যে ৫ খাবার

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

বর্তমানে অনেক শিশুই চোখের সমস্যা দেখা যাচ্ছে। স্কুলগামী অনেক শিশুর চোখেই দেখতে পাবেন মোটা ফ্রেমের চশমা। এটি মোটেই সুখকর কোনো বার্তা নয়। যে সমস্যা বয়সজনিত কারণে হওয়ার কথা, শৈশবেই সেই সমস্যায় ভুগলে বাকি জীবনও সংগ্রাম করে যেতে হবে। শিশুর চোখ ভালো রাখতে সচেতন হতে হবে মা-বাবাকেই। সেজন্য তার পাতে রাখতে হবে এমন সব খাবার যেগুলো চোখের জন্য উপকারী। চলুন জেনে নেওয়া যাক শিশুর চোখ ভালো রাখতে কোন ৫ খাবার নিয়মিত খাওয়াবেন-

দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার

​দুধে থাকে প্রচুর ভিটামিন এ। এই ভিটামিন চোখের জন্য উপকারী। তাই সন্তানকে প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ খেতে দেবেন। শিশুর যদি সরাসরি দুধ খেলে অ্যালার্জির সমস্যা হয় তাহলে তাকে দই, পনির, ছানা খেতে দিতে পারেন। এ ধরনের খাবারে তার সমস্যা হবে না। পুষ্টি পাবে যথেষ্ট।

 

ফল ও শাক-সবজি

শিশুকে ফল ও শাক-সবজি নিয়মিত খেতে দিন। এ ধরনের খাবারে থাকে ভিটামিন ও উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। শিশুর চোখের দৃষ্টি ভালো রাখার জন্য কাজ করে এ জাতীয় খাবার। অনেক শিশু ফল কিংবা শাক-সবজি খেতে চায় না। তাদের একই খাবার প্রতিদিন দেওয়া যাবে না। ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দিলে এবং রেসিপিতে ভিন্নতা আনলে শিশু পছন্দ করে খাবে।

আমন্ড​

অন্যতম উপকারী বাদাম হলে আমন্ড। বাংলায় একে কাঠবাদামও বলা হয়। এই বাদামে থাকে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড যা দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে কাজ করে। সেইসঙ্গে এই বাদামে থাকে প্রচুর ভিটামিন ই। এটি চোখের জন্য ভীষণ উপকারী। চোখের নানা ধরনের সমস্যা দূর হবে নিয়মিত এই বাদাম খেলে। তাই শিশুকে প্রতিদিন অন্তত ৪-৫টি আমন্ড খেতে দিন।

 

মাছ

অনেক শিশু মাছ খেতে চায় না। তাদেরও মাছ খাওয়ার প্রতি আগ্রহী করতে হবে। কারণ নিয়মিত মাছ খেলে শরীরের প্রোটিনের ঘাটতি পূরণ হয়। পাশাপাশি মাছে থাকা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড চোখ ভালো রাখতে দারুণ কার্যকরী। তাই শিশুকে নিয়মিত মাছ খেতে দিতে হবে। বিভিন্ন ধরনের ছোট মাছ, সামুদ্রিক মাছ এক্ষেত্রে বিশেষ উপকারী।

ডিম​

শিশুর চোখ ভালো রাখার জন্য আরেকটি খাবার তাকে নিয়মিত খেতে দেবেন, সেটি হলো ডিম। এর কুসুমে থাকে প্রচুর লিউটিন। এটি চোখ ভালো রাখার কাজে অত্যন্ত কার্যকরী। ডিমের পাশাপাশি ডিম দিয়ে তৈরি বিভিন্ন খাবারও তাকে খেতে দিন। এতে চোখ তো ভালো থাকবেই, সেইসঙ্গে শিশুর শরীরেও পর্যাপ্ত পুষ্টি পৌঁছাবে।