• সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৮ রজব ১৪৪৪

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন সারদায় প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শিশুদের জন্য নিরাপদ মাতৃভূমি করতে সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ প্রধানমন্ত্রী আরসিসির ৭ উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন আজ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন ৪৬০ পুলিশ কর্মকর্তা বিএনপির দুর্নীতি নিয়ে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ফেসবুক স্ট্যাটাস রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী ২৫ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন রোববার ডিজিটালাইজেশনে বাংলাদেশে বিপ্লব ঘটে গেছে : প্রধানমন্ত্রী আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে : বিদায়ি সুইস রাষ্ট্রদূতকে প্রধানমন্ত্রী

আলো জ্বালিয়ে ঘুমালে শরীরের জন্য মারাত্মক ৪ ক্ষতি

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২১ জানুয়ারি ২০২৩  

ঘুমানোর সময় আলো নিভিয়ে রাখার অভ্যাস অনেকেরই আছে। ঘুমানোর সময় অনেকেই আবার ঘরে আলো জ্বালিয়ে রাখেন। কিন্তু আপনি জানেন কি আলো জ্বালিয়ে ঘুমালে শরীরের জন্য কতটা ক্ষতি হতে পারে? সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিন পর্যাপ্ত ঘুম জরুরি। আবার ঘুমাতে গিয়ে কিছু নিয়ম না মানলেও হতে পারে মারাত্মক ক্ষতি। তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ঘুমের পরিবেশ ও আলোর বিষয়টি।

শিকাগোর নর্থওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের মতে, আলোর নিচে ঘুমালে গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে যায়। বিপাক ক্রিয়ায় বিঘ্ন ঘটতে পারে। এমনকি হার্টের অসুখ, ডায়াবেটিসের ঝুঁকিও বেড়ে যায়।

২০২২ সালের করা এক সমীক্ষায় আলো জ্বালিয়ে ঘুমিয়েছেন কিছুসংখ্যক মানুষ আবার কিছুসংখ্যক মানুষ অন্ধকার করে ঘুমিয়েছেন। সমীক্ষার ফলাফলে দেখা গেছে, যারা আলো জ্বালিয়ে ঘুমিয়েছেন তাদের বিপাক এবং হার্টের ওপর প্রভাব পড়েছে বেশি।

এই আলো শুধু ঘরের আলোর সঙ্গে সম্পর্কিত নয়, বরং টিভি বা ল্যাপটপের আলোও আমাদের স্বাস্থ্যের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। আর সারা রাত এমন আলোয় ঘুমালে হতে পারে মারাত্মক রোগ। তাই রাতে আলো জ্বেলে ঘুমালে কী কী ক্ষতি হতে পারে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময়ের এক প্রতিবেদনে চলুন জেনে নেয়া যাক।

বিষণ্ণতা হতে পারে
লাইট জ্বালিয়ে ঘুমালে বিষণ্ণতার ঝুঁকি বাড়তে পারে। শুধু তাই নয়, ইলেকট্রনিক ডিভাইস থেকে নির্গত নীল আলো আপনার মেজাজের ওপর খারাপ প্রভাব ফেলে। আলো ঘুমের অভাবের সঙ্গে সম্পর্কিত, যা মেজাজের পরিবর্তন এবং বিরক্তির কারণ হতে পারে।

হৃদ্‌রোগের ঝুঁকি
গবেষণায় দেখা দেছে, আলো দেহঘরিকে কাজ করতে বাধা দেয়, যা বায়োমেকানিকাল পরিবর্তন ঘটায়। ফলে দীর্ঘমেয়াদে উচ্চ রক্তচাপ, হৃদ্‌রোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

রক্তে শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি
শরীরের কোষের শক্তির প্রধান উৎস গ্লুকোজ। আর শর্করা ভেঙে গ্লুকোজ তৈরি হয়। তবে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা গুরুত্বপূর্ণ। কারণ রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে গেলে হৃদ্‌রোগ, দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়া এমনকি কিডনির সমস্যা হতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, রাতে শোয়ার সময় আলোতে দীর্ঘায়িত এক্সপোজার থাকলে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায়। এতে ইনসুলিন প্রতিরোধ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

স্থূলতার শিকার
স্থূলতা বাড়লে স্বাভাবিকভাবেই বিভিন্ন রোগের আশঙ্কা তৈরি হয়। আর নারীদের ওপর একটি গবেষণা করে দেখা গেছে, যারা টিভি বা লাইট জ্বালিয়ে ঘুমান তাদের স্থূলতার ঝুঁকি বেশি থাকে।