• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৭ ১৪২৯

  • || ১৪ মুহররম ১৪৪৪

মাদারীপুর দর্পন

যেসব রোগীদের অধিক পরিমাণে পেয়ারা খাওয়া ক্ষতিকর

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৫ জুন ২০২২  

সুস্বাদু মিষ্টি ফল পেয়ারা সবার কাছেই ভীষণ প্রিয়। শুধু স্বাদেই নয় পেয়ারাতে রয়েছে আরো অনেক গুণ। এই ফলটি কাঁচা বা পাকা দুই অবস্থাতেই খাওয়া যায়, যা উপকারীও। বিভিন্ন দেশে গবেষণা করে এটি জানা গেছে, প্রতিদিন একটি পেয়ারা খেলে শরীরের অনেক সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

ভিটামিন 'সি' যুক্ত ফল পেয়ারা। এর গুণাগুণ আমরা প্রায় কমবেশি সবাই জানি। রোগ প্রতিরোধে পেয়ারার গুনাগুণ অনেক। তবে কিছু কিছু রোগীদের জন্য এই পেয়ারা অধিক পরিমাণে খাওয়া ক্ষতিকারক। 

বিশেষজ্ঞদের মতে, পেয়ারা শরীরের জন্য ভালো, তবে যখন অতিরিক্ত মাত্রায় খাওয়া হয়; তখন তা ক্ষতিকারক হয়ে যায়। পেয়ারায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। যা হজমে সমস্যা হতে পারে। তাই পেয়ারা বেশি পরিমাণে খেলে, পানি গ্রহণের পরিমাণও বাড়িয়ে নিন।

চলুন এবার জেনে নেয়া যাক কোন কোন সমস্যায় ভুগলে আপনাকে পেয়ারা খাওয়ায় রাশ টানতে হবে- 

>> পেয়ারা ঠান্ডা জাতীয় ফল হওয়াতে, অধিক পরিমাণে খেলে হতে পারে সর্দির সমস্যা। আবার যারা আগে থেকেই ঠান্ডা জনিত সমস্যায় ভুগছেন, তারা বেশি পরিমাণে পেয়ারা খেলে এটি বেড়ে যেতে পারে। 

>> গর্ভবতী মায়েদের অধিক পরিমাণে পেয়ারা খাওয়া উচিত নয়। অতিরিক্ত পেয়ারা খেলে ফাইবার বাড়ে। যা হজমে সমস্যা সৃষ্টি করে।

>> ডায়রিয়া, আমাশয় ইত্যাদি পেটের সমস্যা থাকলে পেয়ারা খাওয়া থেকে দূরে থাকুন। এর মধ্যে পটাসিয়াম এবং ফাইবার থাকে। তাই ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করার আগে একজন চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নিন।

>> পেয়ারার পাতার রস অধিক পরিমাণে খেলে হতে পারে মাথাব্যথা, কিডনি সমস্যাসহ আরো অনেক রোগ।

>> অতিরিক্ত পরিমাণে পেয়ারা খেলে পেট ফাঁপা হতে পারে। আসলে এই ফলের মধ্যে পর্যাপ্ত পরিমাণে চিনি থাকে, যা ফ্রুক্টোজ হিসেবে পরিচিত। ফ্রুকটোজ হজম ও শোষণ করতে সমস্যা হয়। এর ফলে পেটে ফোলাভাব এবং গ্যাস হতে পারে।