• মঙ্গলবার   ৩০ নভেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

মাদারীপুর দর্পন

৭৩ কিমি সড়ক বদলে দিয়েছে বরেন্দ্রর আর্থসামাজিক চিত্রপট

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০২১  

সড়কের চারপাশে রোপণ করা গাছের দৃষ্টিনন্দন ফুলগুলো ছড়াচ্ছে সৌন্দর্যের আভা। আর মসৃণ সড়কে ছুটে চলা গাড়ি কাঙ্ক্ষিত সময়ে পৌঁছে যাচ্ছে গন্তব্যে। দুর্ভোগ আর দুর্গতির অবসান শেষে এ এক স্বপ্নের সড়ক। ৪৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭৩ কিলোমিটার নওগাঁ-রাজশাহী সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে বরেন্দ্র জনপদের কৃষি ও র্অথনীতিতে এসেছে আমূল পরিবর্তন। স্থানীয়রা বলছেন, এ সড়ক উন্নয়নে কৃষিপণ্যের সঠিক বাজার ব্যবস্থা নিশ্চিতসহ উত্তর জনপদে যোগাযোগ ব্যবস্থা একধাপ এগিয়েছে।

কৃষিনির্ভর নওগাঁ জেলায় বছরে ৪ মৌসুমে ২৮ লাখ মেটিক টন ধান, প্রায় সাড়ে ৪ লাখ মেট্রিক টন আমসহ কৃষিপণ্য উৎপাদন হয়। প্রান্তিক চাষিরা ফসলের ন্যায্য দাম পেতে খোঁজেন শহরের বাজার। নওগাঁ-রাজশাহী সড়কের সুষম অবকাঠামো উন্নয়ন নিশ্চিত হওয়ায় গ্রাম শহরের কমেছে দূরত্ব, তৈরি হয়েছে যোগাযোগের এক অনন্য দৃষ্টান্ত ।

জেলা শহরের সঙ্গে বিভাগীয় শহরের একমাত্র যোগাযোগমাধ্যম এ সড়কটি দু’বছর আগেও দুর্ভোগ আর দুর্গতি হিসেবে পরিচিত ছিল। কিন্ত ৪৩৯ কোটি টাকার বৃহৎ প্রকল্প বাস্তবায়নে সড়কটি এখন নান্দকিতার ছড়ানোর পাশাপাশি জেলাবাসীর নির্ভরযোগ্য যোগাযোগ মাধামে পরিণত হয়েছে।

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর সান্তাহার মোড় থেকে রাজশাহীর নওহাটা পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ শুরু করে। বৃহৎ এ সড়ক প্রকল্পই বদলে দিয়েছে সব কিছু। অথচ এ সড়কটি দু’বছর আগেও দুর্ভোগ আর দুর্গতি হিসেবে পরিচিত ছিল।

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উদ্যোগে নাজুক সড়ক সংস্কার ও সম্প্রসারণের প্রকল্প হাতে নেওয়া হয় ২০১৭ সালে । নওগাঁর সান্তাহার মোড় থেকে রাজশাহীর নওহাট পর্যন্ত ৭৩ কিলোমিটার এ সড়ক উন্নয়ন কাজে নেওয়া হয় আধুনিক পরিকল্পনা । এ পরিকল্পনায় প্রশস্ত ও মুজবুতকরণ ছাড়াও হার্ড সোল্ডার সাফেসিং কাজের পর বদলে যায় সড়কের চেহারা।

কৃষিপ্রধান এ জেলার পণ্যপরিবহনসহ নানা কাজে নওগাঁ রাজশাহী সড়কটি ব্যাপক গুরুত্ব বহন করে । ৭৩ কিলোমিটার এ সড়ক সংস্কারে এ অঞ্চলে আর্থসামাজিক পরির্তনে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে বলে মনে করছে স্থানীয়রা।

স্থানীয় নওহাটা মোড় এলাকার একাধিক বাসিন্দা  জানান, এ সড়ক উন্নয়নে এখন খুব দ্রত সময়ে রাজশাহী যাওয়া যাচ্ছে।  একজন বাসচালক বলেন, আগে দুই ঘণ্টা সময় লাগত, এখন মাত্র ৪৫ মিনিটে যাওয়া যায়।

৪৩৮ কোটি ৯৪ লাখ টাকার সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প ধরা হলেও গুণগতমান ঠিক রেখেই ২৬ কোটি টাকা কম খরচেই সড়কের কাজ শেষ করা হয়েছে বলে জানালেন নওগাঁ সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সাজেদুর রহমান।

২০১৭ সালে শুরু হওয়া এ সড়ক উন্নয়নকাজ শেষ হয় গত ৩০ জুন। নতুন এ সড়কে আড়াই ঘণ্টার পথ ছোট হয়ে পৌনে এক ঘণ্টায় জেলাবাসীর সঙ্গে বিভাগীয় শহরের তৈরি হয়েছে মেলবন্ধন।