• শনিবার ২০ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

  • || ১২ মুহররম ১৪৪৬

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ

ডেঙ্গু মোকাবিলায় ৫২ কোটি টাকা বরাদ্দ

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০২৪  

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন (এলজিআরডি) ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম সংসদকে জানিয়েছেন, দেশের ১২টি সিটি করপোরেশনে ডেঙ্গু মোকাবিলা ও পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের জন্য চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ৩২ কোটি এবং পৌরসভায় ২০ কোটি মিলিয়ে সর্বমোট ৫২ কোটি টাকা এডিপির বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) উন্নয়ন সহায়তা খাতের আওতায় ইউনিয়নের অনগ্রসরতা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং রোগের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলার জন্য ১০০ কোটি টাকা সংস্থান রাখা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার সংসদে টেবিলে উপস্থাপিত প্রশ্নোত্তরে সংসদ সদস্য শফিউল আলম চৌধুরীর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী একথা জানান।

স্বতন্ত্র এমপি খসরু চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে তাজুল ইসলাম সংসদকে জানান, ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাবের কারণে ড্রোনের মাধ্যমে মশার প্রজনন কেন্দ্র চিহ্নিত করে কীটনাশক প্রয়োগ করা হচ্ছে। তিনি জানান, সিটি করপোরেশনের সব ওয়ার্ডে প্রতিদিন লার্ভিসাইডিং এবং এডাল্টিসাইডিং করা হয়। এছাড়া ড্রোনের মাধ্যমে মশার প্রজননক্ষেত্রসমূহ চিহ্নিত করে কীটনাশক প্রয়োগ করা হয়। ডেঙ্গুর হটস্পটগুলোতে বিশেষভাবে নজরদারি করা হয়।

এমপি শফিউল আলম চৌধুরীর আরেক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, শিশুর জন্মের পরপরই জন্মনিবন্ধন ইস্যুকরণের ব্যবস্থা আছে। শিশুর জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে 'বিনা ফিসে' জন্মনিবন্ধন সম্পন্ন করা হয় বলেও জানান তিনি।

'১১ ভাগ মানুষ আর্সেনিক দূষণের ঝুঁকিতে' নোয়াখালী-২ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য মোরশেদ আলমের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী তাজুল ইসলাম সংসদকে জানান, পরিসংখ্যান ব্যুরো ও ইউনিসেফের যৌথ জরিপ প্রতিবেদন 'মাল্টিপল ইনডিকেটর ক্লাস্টার সার্ভে, ২০১৯' অনুযায়ী বর্তমানে দেশের মোট জনসংখ্যার ১১ ভাগ আর্সেনিক দূষণের ঝুঁকিতে রয়েছে।