• সোমবার   ০৩ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৮ ১৪২৯

  • || ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

মাদারীপুর দর্পন

সেবাকেন্দ্রে গ্রাহকের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে জরিমানা

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২২  

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ মাদারীপুরে স্যামসাং কাস্টমার সেবাকেন্দ্রে নির্ধারিত মূল্যের বিপরীতে অধিক অর্থ আদায় ও গ্রাহকের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে ৫০ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে শহরের পুরান বাজার এলাকায় স্যামসাং সার্ভিস সেন্টারে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা আদায় করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মাদারীপুরের সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদৌস।

পুলিশ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সূত্র জানায়, শহরের ভূইয়া বাড়ির মোড় এলাকার এক ব্যবসায়ী তার স্যামসাং স্মার্ট ফোনটি নষ্ট হয়ে গেলে তিনি নির্ধারিত সার্ভিস সেন্টারে সেবা নিতে গিয়ে প্রতারিত হন। ওই গ্রাহক ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযোগ জানায়। অভিযোগের ভিত্তিতে ওই সার্ভিস সেন্টারে অভিযান চালায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একটি দল। পরে অভিযোগের সত্যতা পেলে তারা স্যামসাং কাস্টমার সেবাকেন্দ্রে ৫০ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা আদায় করেন।

এ সময় স্যামসাং কাস্টমার সেবাকেন্দ্রের ব্যবস্থাপক মো. শুকর আলী এ জারিমানার টাকা পরিশোধ করেন। একই সময় শহরের একটি শপিং সেন্টারে ভোক্তা অধিকার ও মাদারীপুর সদর উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত যৌথ একটি অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় ভোক্তার সঙ্গে প্রতারণা করার অভিযোগে ওই শপিং সেন্টারে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাইনউদ্দিন।

জানতে চাইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মাদারীপুরের সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, ‘স্যামসাং কাস্টমার সেবাকেন্দ্রে আন্তর্জাতিক ডলারের দামের সাথে মিল না রেখে অতিরিক্ত দাম ধরে পণ্য বিক্রি করছে। এর সঙ্গে আবার অতিরিক্ত ভ্যাট নিচ্ছে। ফলে প্রতিটি গ্রাহক মোবাইলের ডিসপ্লে, গ্লাস, ব্যাটারী, কাভার, ক্যাচিংসহ বিভিন্ন সামগ্রী ক্রয় করে গ্রাহক প্রতারিত হচ্ছে। তাই এই সার্ভিস সেন্টারকে সর্তকতামূলক ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অন্যদিকে উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে আরও একটি যৌথ অভিযানে একটি শপিং সেন্টারকে আরও ৫০ হাজার টাকার জরিমানা করা হয়।’