• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

  • || ২৩ শা'বান ১৪৪৫

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
বিজিবিদের চেইন অব কমান্ড মেনে কাজ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর এখানে এলেই মনটা ভারী হয়ে যায়- বিজিবি দিবসে প্রধানমন্ত্রী বিশ্বমানের স্মার্ট বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই বিজিবিকে বিজিবি দিবসের কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আব্দুল কাদের জিলানীর (র.) মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ নির্বাচনে যথাযথ দায়িত্ব পালন করায় ডিসিদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর ভোক্তাদের যেন হয়রানি হতে না হয়, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে বাজারে নজরদারি-মজুত ঠেকাতে ডিসিদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে সশস্ত্র বাহিনী যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে

পাকিস্তানে কোন সরকার পাঁচ বছর পার করতে পারেনি: শাজাহান খান

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ পাকিস্তানে স্বাধীনতার পর থেকে এখন পর্যন্ত কোন সরকার পাঁচ বছর পার করতে পারেনি। আর আওয়ামীলীগ সরকার বার বার মেয়াদ উর্ত্তীণ করে সরকার গঠণ করছে। এতেই প্রমাণ হয় পাকিস্তান একটি অরানৈতিক ও বিশৃঙ্খল রাষ্ট্র। তাদের চেয়ে বাংলাদেশ সব দিক থেকে এগিয়ে আছে। আগামীতেও বাংলাদেশকে বিশ্বের বিস্ময় ভাবতে হবে।

রোববার বেলা ২টার দিকে মাদারীপুর শহরের কলেজ রোড এলাকার সর্ব কনিষ্ঠ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সারোয়ার হোসেন বাচ্চু শরীফের ৫৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আ’লীগের সভাপতিমন্ডলীয় সদস্য ও সাবেক নৌমন্ত্রী শাজাহান খান এমপি একথা বলেন।

শাজাহান খান আরো বলেন, ‘ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয় লাভের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়ে বিশ্বের কাছে গৌরব অর্জন করেছে। এদেশের মানুষের মর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্য দিকে পাকিস্তান বার বার সরকার গঠন করেও ঠিকতে পারছে না। তার অন্যতম কারণ তাদের সঠিক নেতৃত্ব নেই। আর আমাদের দেশেও তাদের অনুসারী জামায়াত-বিএনপি সঠিক নেতৃত্বের অভাবে হারিয়ে যেতে বসেছে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন শহীদ বাচ্চুর ভাই বীরমুক্তিযোদ্ধা হারুণ শরীফ। অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন শহীদ বাচ্চুর ভাই মো. মনোয়ার হোসেন মন্টু শরীফ। এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন খলিল বাহিনীর প্রধান বীরমুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমান খান, জেলার সাবেক কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা শাজাহান হাওলাদার প্রমুখ। এসময় জেলার বীরমুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষ অংশ নেয়। পরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।