• শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২০ ১৪২৬

  • || ১০ শা'বান ১৪৪১

মাদারীপুর দর্পন
১৬৪

শীতে গিজার বসানোর কথা ভাবছেন,যেনে নিন জরুরি বিষয়গুলো!

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি ২০২০  

 


গোসল থেকে শুরু করে শীতের সারা দিনের কাজকর্ম অনেকটাই সহজ করে দেয় গিজারের গরম পানি। গিজার শীতের দিনের প্রয়োজনীয় একটি উপকরণ।তাই গিজার কেনার আগে যে বিষয়গুলো জেনে নেয়া জরুরি।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয়:

গিজার কেনার একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল আপনি কি ধরনের বাড়িতে থাকেন এবং পরিবারে কতজন আছে। ফ্ল্যাট বাড়ি হলে ইলেকট্রিক গিজারই ভাল। চার জনের পরিবারে ভাল হয় ২৫ লিটারের বা ৩৫ লিটারের হলে চলবে। অটো কাট-অফ, থার্মাল কাট আউট, কপার হিটিং এলিমেন্ট, টু ইন ওয়ান প্রেশার কাম রিলিজ ভালভ ইত্যাদি আছে কি না দেখে নেবেন। তবে, ব্র্যান্ডেড গিজারগুলিতে এগুলো থাকেই। আপনার বাড়ি কোথায় তার উপরও নির্ভর করে কেমন গিজার কিনবেন। মূলত তিন ধরনের পানি আমরা ব্যবহার করি — কলের পানি (ফ্ল্যাট বাড়িতে), ক্ষার পানি (শহরের আশপাশে) এবং লবনাক্ত পানি (উপকূলবর্তী জায়গাতে)। যেখানে লবনাক্ত পানি সেখানে আমাদের উচিত এমন গিজার ব্যবহার করা যার ট্যাঙ্কের বাইরেটা ফাইবার আর ভেতরের আবরণ সম্পূর্ণ তামার। তামার বিশেষ ক্ষয়-প্রতিরোধ ক্ষমতা আছে যা গিজারের আয়ু বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এছাড়া, তামা তাপপ্রবাহে সাহায্য করে বলে বিদ্যুতের সাশ্রয় হয়। BEE-এর ফাইভ স্টার ছাপ দেওয়া গিজার কিনতে পারলে সবচেয়ে ভাল। বিদ্যুতের সাশ্রয় হবে। চেষ্টা করবেন ব্র্যান্ডের গিজার কিনতে। বিশেষ করে গিজারের ট্যাঙ্কটা কি দিয়ে তৈরি, উল্লেখ না থাকলে কেনা ঠিক নয়। কারণ গিজারের ট্যাঙ্কটাই সব। চাইলে আপনার টয়লেটের ফলস ছাদে এই গিজার ফিট করতে হবে।

গিজারের ব্যবহারঃ  

গোসল করার পূর্বে গিজার চালু করার ১০ মিনিট পর গোসল করতে পারবেন। অবশ্য গিজার চালু করার পর পরিমান মত গরম হলে অটোমেটিক ভাবে গিজার অফ হয়ে যাবে।

 দরদাম:

প্রত্যেকটি গিজার রয়েছে ২ বছরের গ্যারান্টি কিংবা ওয়ারিন্টি। বিভিন্ন আকারের গিজার পাওয়া যায়। কত লিটার পানি গরম করতে পারে তার ওপর নির্ভর করে এসব গিজারের সাইজ হিসেব করা হয় । ২০ লিটার থেকে ৯০ লিটার বিভিন্ন আকারে পাওয়া যায়। জিএমজি (বাংলাদেশি) ৩০ লিটার গিজারের দাম ৪০০০ টাকা, ৪৫ লিটারের দাম ৪৬০০, ৬৭ লিটারের দাম ৫০০০ এবং ৯০ লিটারের দাম ৬০০০ টাকা। অ্যারিস্টোন (ইতালি) ব্র্যান্ডের ২০ লিটার গিজারের দাম ৮৫০০, ৩০ লিটারের দাম ৯০০০ এবং ৫০ লিটারের দাম ১০ হাজার টাকা। সঙ্গে গিজার কানেকশন পাইপ লাগবে দুটি, দাম ৩৫০ এবং গিজার বল বাল্ব লাগবে দুটি, দাম ৩০০ টাকা। প্রতিটি গিজার ও ফিটিংসের সঙ্গে দুই বছরের ওয়ারেন্টি দেওয়া থাকে। 

লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর