• সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন
১৮৬

লন্ডন যেতে চান বেগম জিয়া, তারেক নীরব-অসন্তুষ্ট জোবায়দা!

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১ সেপ্টেম্বর ২০২০  

দুর্নীতি মামলায় দেড় বছরের অধিক সাজা পেয়ে সাময়িক মুক্তি পাওয়া বেগম জিয়ার উন্নত চিকিৎসার নামে বিদেশযাত্রা নিয়ে নতুন আলোচনা শুরু হয়েছে বিএনপিতে। দেশে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা থাকলেও বিদেশ গিয়ে উন্নত চিকিৎসা নিতে চান বেগম জিয়া, এমনটাই দাবি তার পরিবারের। কিন্তু তারেক রহমানের পরিবারের নানা অজুহাত ও অনীহার কারণে বেগম জিয়ার যুক্তরাজ্যযাত্রা অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে বলে জানা গেছে।

একাধিক গোপন সূত্রে জানা গেছে, বেগম জিয়ার বিদেশযাত্রায় বাধা হয়ে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন তারেক রহমানের স্ত্রী জোবায়দা রহমান। তিনি চান বেগম জিয়া যেন দেশে থেকেই চিকিৎসা নেন। এতে লাভবান হবে বেগম জিয়া ও বিএনপি। বেগম জিয়া দেশ ছাড়লে রাজনীতিতে বিএনপি আরো দুর্বল হয়ে পড়বে। তাই স্বামী তারেক রহমানের মাধ্যমে বেগম জিয়াকে বিদেশযাত্রায় নিরুৎসাহিত করার চেষ্টা চালাচ্ছেন জোবায়দা। এছাড়া জোবায়দার মতে, বেগম জিয়ার সঠিক নেতৃত্বের অভাবে পথভ্রষ্ট হতে পারে বিএনপি। অভিভাবকহীন হয়ে পড়বে আর এই সুযোগে দল ভাঙার চেষ্টা করবে নানা মহল। তাই দেশে থেকে চিকিৎসা নেয়াটাই বেগম জিয়ার জন্য ভালো হবে বলে বলে তারেককে বুঝিয়েছেন জোবায়দা। তবে বেগম জিয়াকে লন্ডনে আসতে না দিতে জোবায়দার অন্য কারণ রয়েছে বলেও জানা গেছে।

লন্ডনে জোবায়দা রহমানের ঘনিষ্ঠসূত্রে জানা গেছে, বেগম জিয়ার সাথে জোবায়দা রহমানের সম্পর্ক ভালো নয়। জোবায়দার চোখে, বেগম জিয়া ভালো শাশুড়ি হতে পারেননি। তিনি সব সময় পুত্রবধূদের চাপে রাখেন। সম্পদের ভাগও দিতে চান না কাউকে। এছাড়া অসুস্থ হওয়ার কারণে বেগম জিয়ার দেশেই বেগম জিয়া তার পরিবারের সদস্যদের সাথে দুর্ব্যবহার করছেন। তাই লন্ডনের নিজ বাসায় এনে সেবার নামে বেগম জিয়ার দুর্ব্যবহার ও মানসিক নির্যাতন সইতে চাইছেন না জোবায়দা। কন্যারা বড় হয়েছে, তাদের সামনে অপমান করলে নিজের আত্মসম্মান বলে কিছু থাকবে না জোবায়দার। তাই নিজে না পারলেও তারেক রহমানের মাধ্যমে বেগম জিয়ার বিদেশযাত্রা ঠেকানোর চেষ্টা করছেন জোবায়দা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারেক রহমান তার কথা মানবেন কিনা সেটি নিয়েও দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর