• রোববার   ১৩ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

  • || ০৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন

রাতে ভেজা চুলে ঘুমালে যেসব ক্ষতি

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২১  

সারাদিন নানান কাজের ব্যস্ততায় দুপুরের গোসলের সময়টি হয়ে ওঠে না। দেখা যায় যারা চাকরি করেন তারা অধিকাংশ সময় রাতে গোসল করেন। কারণ তাদের দিনের প্রায় পুরো সময় অফিসে কাটাতে হয়। আবার এরমধ্যে অনেকেই ক্লান্তির কারণে গোসলের পরে ঘুমিয়ে পড়েন।

আপনার যদি এই অভ্যাস থেকে থাকে তবে আজই সাবধান! কারণ ভেজা চুলে ঘুমালে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে গেলে চুলের কোন ক্ষতিগুলো হতে পারে-

ফাঙ্গাল ইনফেকশন

ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে গেলে যেসব ক্ষতি হয় তার মধ্যে একটি হলো ফাঙ্গাল ইনফেকশন। মাথার ত্বক ও চুল ভেজা থাকার কারণে ঘুমানোর সময় বালিশের কাপড়েই তা শুকায়। ফলে মাথার ত্বকে বাসা বাঁধে বিভিন্ন ধরনের ব্যাকটেরিয়া। দেখা দেয় একাধিক ফাঙ্গাল ইনফেকশন। খুশকি এবং চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যাও শুরু হয় সেখান থেকে।

ঠাণ্ডা লাগার সমস্যা

যাদের ঠান্ডা লাগার সমস্যা আছে তারা ভেজা চুলে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস বন্ধ করুন। কারণ এই অভ্যাসের কারণে সহজেই ঠাণ্ডা লেগে যেতে পারে। সেখান থেকে হতে পারে সর্দি, কাশি ইত্যাদি। মাথা যন্ত্রণা বা মাথা ধরার সমস্যা দেখা দেয়াও অস্বাভাবিক নয়। তাই ঠাণ্ডার সমস্যা থেকে বাঁচতে এই অভ্যাস বাদ দিন।

চুলে জট পড়া

নিয়মিত ভেজা চুলে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস করলে চুলে জট পড়তে পারে। কারণ ভেজা চুল বেঁধে ঘুমানো সম্ভব নয়। ফলে চুল খোলা রেখেই ঘুমাতে যেতে হয়। এ কারণে সকালে চুলে জট পড়া খুব স্বাভাবিক। সেই জট ছাড়াতে গিয়ে আবার চুল পড়া বা ছিঁড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই ভেজা চুলে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস বন্ধ করা জরুরি।

চুল ভেঙে যাওয়া

আমাদের চুল ভেজা অবস্থায় সবচেয়ে দুর্বল থাকে। এসময় সহজেই ভেঙে যেতে পারে বা পড়ে যেতে পারে। তাই ভেজা অবস্থায় চুল আঁচড়ানোও ঠিক নয়। ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে গেলে বালিশের সঙ্গে ঘষা লেগে চুল ভেঙে যেতে পারে। ফলে চুল প্রাণহীন ও রুক্ষ হয়ে পড়ে।

করণীয়

>> যদি সম্ভব হয় তবে সকালে কিংবা সন্ধ্যার দিকে গোসল সেরে চুল দ্রুত শুকিয়ে নিন। কোনোভাবেই ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে যাবেন না।

>> সম্ভব হলে রাতে গোসলের অভ্যাস বাদ দিন। অন্তত চুল ভেজানো থেকে বিরত থাকুন। হালকা গরম পানিতে হাত-পা ও শরীর ধুয়ে নিলে কিছুটা সতেজ অনুভব করবেন।

>> অনেকে আরামের জন্য বালিশে সুতির কভার ব্যবহার করেন। তবে চুল ভালো রাখতে চাইলে সুতির বদলে ব্যবহার করুন সিল্কের কভার। এতে চুলে তুলনামূলক কম ঘষা লাগবে। ফলে চুল ছিঁড়ে কিংবা পড়ে যাওয়ার ভয় কমবে।