• শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৭

  • || ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন
১৭৫

রাজনীতি আর টানে না, ধ্যানে-জ্ঞানে বিদেশযাত্রায় বিভোর বেগম জিয়া!

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০২০  

দুর্নীতি মামলায় কারাভোগ করতে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া শর্তসাপেক্ষে মুক্তিলাভের পর এখন দিন পার করছেন রাজধানীর গুলশানের ভাড়া বাসা ‘ফিরোজা’য়। সব রকমের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে বিরত রেখেছেন বেগম জিয়া। অবশ্য জানা গেছে, বেগম জিয়ার এমন নীরবতায় নাখোশ দলটির একটি অংশ। তারা বলছেন, নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য নিশ্চুপ রয়েছেন তিনি। এতে তার আপোষহীন নীতি প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। দলের চেয়ে নিজকে বেশি গুরুত্ব দেয়ায় বিএনপি আজ দিশেহারা। নীরব থাকার চেয়ে বৃহত্তর স্বার্থে বেগম জিয়াকে দলীয় পদ ছেড়ে দেয়ার পক্ষেও মতামত দিয়েছেন তারা।

বিএনপি ঘনিষ্ঠ একাধিক গোপন সূত্র বলছে, সরকারের বেঁধে দেয়া শর্ত মেনে নিয়ে নিজের আপোষহীন ইমেজ ধ্বংস করেছেন বেগম জিয়া। তার এমন নমনীয়তা ও নীরবতায় বিএনপি দিশেহারা হয়ে পড়েছে। দলকে কেউ সঠিক নির্দেশনা দিতে পারছে না। বিএনপি নেত্রী দলের চেয়ে নিজের নিরাপত্তা ও আরাম-আয়েশকে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন। যার কারণে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে সাক্ষাত করেন না, তাদের সাথে কথাও বলতে চান না। এতদিন দলের কথা বললেও মূলত বেগম জিয়া নিজকেই বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন। বিএনপির রাজনীতিতে ব্যক্তি স্বার্থ বেশি প্রাধান্য পায়। বেগম জিয়ার মতো তারেক রহমানও দলের চেয়ে নিজের ব্যাপারে বেশি সচেতন। দলকে তারা হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেন বলেও তৃণমূল নেতাদের ক্ষোভ। দলের এমন দুরবস্থায় বেগম জিয়ার অন্তত গোপন ম্যাসেজ দেয়া উচিত বলেও মনে করেন তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। তবে সেক্ষেত্রে গোপনীয়তা রক্ষা করা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন তারা। কারণ বিএনপির একাধিক সিনিয়র নেতার বিরুদ্ধে তথ্য-পাচারেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এদিকে বেগম জিয়া ঘনিষ্ঠ একাধিক সূত্র বলছে, রাজনীতি নয় আপাতত নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে বেশি ভাবছেন বেগম জিয়া। যে রাজনীতির জন্য তিনি জেল খেটেছেন, সেই রাজনীতি বেগম জিয়াকে আর টানে না। বিএনপির রাজনীতি নিয়ে চরম হতাশ তিনি। বিএনপির রাজনীতি ক্রেজ হারিয়েছে। রাজনীতি বাদ দিয়ে বিদেশে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা নেয়াই এখন বেগম জিয়ার মূল টার্গেট। বিদেশ বলতে স্রেফ লন্ডনকে বুঝাতে চেয়েছেন বেগম জিয়া।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর