• মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৫ ১৪২৭

  • || ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন
৩২

রক্ত আমাশয় সারানোর এক মোক্ষম দাওয়াই

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০২০  

কাঁটা মান্দার একটি পাতাঝরা মাঝারি আকারের বৃক্ষ। কাঁটা মান্দার গাছের কোনোটির কাণ্ডের গায়ে প্রচুর কাঁটা থাকে। আবার কোনোটির কাণ্ডে কাঁটার পরিমাণ কম। 

এই গাছে বসন্তকালে ফুল ফোটে। আর যখন ফুল ফোটে, তখন এ গাছের ফুলে বিচরণ করে নানান প্রজাতির পাখি। কাঁটা মান্দার ফুল গ্রামের শিশু কিশোরদের কাছে অতি প্রিয়। 

পাকা তেঁতুল, সরিষার তেল ও মান্দারের লাল ফুল চটকিয়ে এক প্রকার চাটনি তৈরি করা হয়। যা তেঁতুল বানানি নামে বরিশাল এলাকায় পরিচিত। এই তেঁতুল বানানি খেতে অনেক সুস্বাদু। 

শুধু ফুলই নয়, এর ঢাল, শেকড় ও পাতা সবই খাওয়া যায়। এই কাঁটা মান্দার মানুষের শরীরের জন্য খুবই উপকারি। এটি ওষুধ হিসেবেও ব্যবহৃত হয়ে থাকে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক এর ওষুধি গুণাগুণ সম্পর্কে-

> কাঁটা মান্দার পাতার রস নিয়মিত খেলে পেটের সমস্যা নিরাময় হয়ে যায়।

> এই গাছের ছালের রস দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে রক্ত আমাশয় ভালো হয়ে যাবে।

> উদক মেহ রোগ দেখা দিলে কাঁটা মান্দার গাছের ছালের রস মধুর সঙ্গে মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে খেলে উপকার পাওয়া যায়।

> প্রস্রাবের যাবতীয় রোগ নিরাময়ে জন্য কাঁটা মান্দার পাতার রসের সঙ্গে গরম পানি মিশিয়ে সকালে ও বিকালে খেলে ভালো উপকার পাওয়া যাবে।

> শরীরের কোথাও ফোঁড়া হলে কাঁটা মান্দার পাতা বেটে অল্প গরম করে ব্যথা জায়গায় দুই দিন লাগালে ব্যথা চলে যাবে। 

> মায়ের স্বাস্থ্য ভালো হওয়া স্বত্ত্বেও শিশু বুকের দুধ পাচ্ছে না। এক্ষেত্রে দুই চা চামচ কাঁটা মান্দার পাতার রস তিন থেকে চার চা চামচ নারকেল দুধের সঙ্গে মিশিয়ে সকালের দিকে কয়েকদিন খেলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর