• বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৬ ১৪২৬

  • || ১৫ শা'বান ১৪৪১

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:
বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ যারা সাহায্য চাইতে পারবে না তাদের তালিকা করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসকরা কেন চিকিৎসা দেবে না, এটা খুব দুঃখজনক : প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নীতিমালা করার নির্দেশ প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়ন হলে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াবে: অর্থমন্ত্রী করোনা: ৭৩ হাজার কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা বেসরকারি হাসপাতাল চিকিৎসা না দিলেই ব্যবস্থা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রতি উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আজ থেকে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে সেনাবাহিনী মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সমালোচনা করছে বিএনপি : কাদের
৭১

মধ্যরাতে ফুটপাতে আড্ডা, ঘরে পাঠালো পুলিশ

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২০  

চট্টগ্রাম নগরের বিভিন্ন এলাকায় প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা না মেনে আড্ডা দেয়ায় বখাটে যুবকদের পিটুনি দিয়ে ঘরে পাঠিয়েছে পুলিশ। পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দিনভর সেনা টহলের পরও বিভিন্ন এলাকায় রাস্তার পাশে আড্ডা দিচ্ছিল এই কিশোর-যুবকরা।

বুধবার (২৫ মার্চ) রাত ১১টা থেকে নগরের কোতয়ালী, চকবাজার, বাকলিয়া ও সদরঘাট থানা এলাকায় এ অভিযান চালায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (দক্ষিণ জোন)।

সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতয়ালী জোন) নোবেল চাকমা বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া ঘাতকব্যধি করোনাভাইরাস সামলাতে বুধবার সকাল থেকে মাঠ পর্যায়ে কাজ শুরু করেছে যৌথবাহিনী। রাতেও যাতে মানুষ রাস্তা বা পথেঘাটে অযথা ঘোরাঘুরি করতে না পারে যে জন্য আমরা অভিযান চালাই। আমরা চেষ্টা করেছি জনগণকে সচেতন করতে। জনগণকে বাসায় রাখতে। সিএমপির দক্ষিণ বিভাগের কোতয়ালী, বাকলিয়া, চকবাজার এবং সদরঘাট থানায় আমদের টহল ছিল। এ সময় বেশ কিছু এলাকায় নির্দেশনা না মেনে মধ্যরাতেই আড্ডা দিচ্ছিল বখাটেরা। পুলিশ অনেককে বুঝিয়ে, আবার অনেককে ভয় দেখিয়ে ঘরে পাঠিয়েছে। আমাদের সবার উচিত এখন ঘরে থাকা।’

jagonews24

কোতয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, ‘আশার দিক হলো বেশির ভাগ মানুষ লকডাউনের বিধি মানছে। কিছু কিছু জায়গায় যারা মানছেন না তাদের পুলিশের পক্ষ থেকে বুঝিয়ে বা বলপ্রয়োগ করে বাসায় পাঠানো হচ্ছে। আমরা জেগে আছি জাতিকে নিরাপত্তা দেয়ার জন্যই। নগরবাসীকে বলবো আপনারা বাসায় থাকুন।’

সহকারী পুলিশ কমিশনার নোবেল চাকমা অভিযানে একটি ভিডিও চিত্র নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করে লিখেছেন, ‘যথারীতি সারাদিনের কর্মব্যস্থতা ছিল আমাদের। এরপরও রাত ১১টার দিকে এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি বোঝার জন্য অভিযানে বের হই। ধন্যবাদ জানাই সাধারণ জনগণকে, যারা (প্রায় সবাই) সরকারের ঘোষিত অনির্ধারিত ১০ দিনের লকডাউন কার্যকর করার জন্য সরকারকে সহযোগিতা করছে। আজ অনেক জায়গা ঘুরেছি আমরা। প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে জনগণের সচেতনতা দেখেছি আমরা। আমাদের মনে হয়েছে দেরিতে হলেও এদেশের সাধারণ জনগণ সরকারের সিদ্ধান্তের সাথে একমত পোষণ করেছে। তারা সচেতন হয়েছে। আমরা পুলিশ বাহিনীর পক্ষ থেকে তাদের স্যালুট জানাই। তবে এখনো যারা সরকারের ঘোষণার সাথে তাল মেলাতে পারেনি, তাদের বলতে চাই, সচেতন হোন। ঘরে অবস্থান করেন, আপনি ভালো থাকেন। দেশকে ভালো রাখেন, দেশকে সুস্থ রাখেন। যদি এর অন্যথায় হয় আপনাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আমরা কার্পণ্যবোধ করবো না।’

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর