• বুধবার   ২৫ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১১ ১৪২৭

  • || ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন
৬৯

ভোটের রাজনীতিতে জোটছাড়া বিএনপি, সঙ্গীহীনতাই ভরাডুবির কারণ!

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২৭ অক্টোবর ২০২০  

বর্তমান সরকারের আমলে যতগুলো নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিয়েছে, তার একটিতেও ২০ দলীয় জোট কিংবা ঐক্যফ্রন্টের কোন দলগুলোকে পাশে পায়নি দলটি। ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে ভোটের প্রচারে বিএনপি ছিল একা। এদিকে গুঞ্জন উঠেছে, জামায়াতের প্রতি বিরূপ আচরণে জোটের রাজনীতি সঙ্গীহীন হয়ে পড়েছে বিএনপি। আবার জামায়াতের প্রভাবের কারণে ঐক্যফ্রন্টেও কোণঠাসা অবস্থায় রয়েছে বিএনপি। দুকূল রক্ষা করতে তরী ডুবতে বসেছে বিএনপি। দলটি ডাবল ডিলারের ভূমিকা পালন করতে গিয়ে উভয় জোটেই ব্রাত্য হয়ে পড়ছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

একাধিক গোপন সূত্র বলছে, বিভিন্ন মহলে জামায়াতকে নিয়ে সমালোচনা থাকায় ২০ দলীয় জোটের রাজনীতিতে তাদের এড়িয়ে চলা শুরু করে বিএনপি। যা বুঝতে পেরে জামায়াতও বিএনপিকে পাশ কাটিয়ে চলা শুরু করে। যার ফলশ্রুতিতে জামায়াতের সমর্থন ও ভোট হারিয়ে ঢাকার দুই সিটি ও অন্যান্য উপ-নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের সম্মুখীন হয় বিএনপি। অতীতে অর্থ ও পেশি শক্তি দিয়ে বিএনপিকে জামায়াত সমর্থন দিলেও দলটির সাথে বিরূপ আচরণে ২০ দলীয় জোটে শুরু হয় নানা সমালোচনা। বিপদের দিনে জামায়াতকে ফেলে বিএনপির পলায়নপর নীতির কুপ্রভাবে জোটের ছোট ছোট দলগুলোও বিএনপির তরফ থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়া শুরু করে।

অন্যদিকে ঐক্যফ্রন্টপ্রীতির কারণে জামায়াতকে ছুঁড়ে ফেলায় জামায়াতঘেষা অন্যান্য ছোট ছোট দলগুলোও বিএনপির কর্মকাণ্ডে হতাশ হয়ে পড়ে। কিন্তু ঐক্যফ্রন্ট থেকে আশানুরূপ ফল না পাওয়ায় হতাশ বিএনপির হাইকমান্ড। ড. কামালের উপর আস্থা রেখে জামায়াতকে দুপায়ে ঠেলে দিয়ে ২০ দলীয় জোটে খারাপ উদাহরণ সৃষ্টি করেছে বিএনপি। এখন দুকূল হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন তারেক রহমান ও বিএনপির শীর্ষ নেতারা। কোনো জোটই বিএনপিকে পাত্তা দিতে চাচ্ছে না। দীর্ঘদিন স্বেচ্ছাচারিতা করায় ২০ দলীয় জোট বিএনপির প্রতি অসন্তুষ্ট। তবে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, নতুন একটি রাজনৈতিক জোট গড়তে গোপনে গোপনে তৎপরতা চালাচ্ছে জামায়াত। ২০ দলীয় জোট ভেঙ্গে ছোট ছোট দলগুলোকে এক ছাতার নিয়ে জড়ো করতে বিপুল পরিমাণ ফান্ডও গঠন করেছে জামায়াত। শেষ পর্যন্ত ২০ দলীয় জোট ভেঙ্গে যেতে পারে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন খোদ জোটের একাধিক শীর্ষ নেতা।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর