• রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

মাদারীপুর দর্পন
২১

বঙ্গবন্ধুকে ‘অনুসরণের চেষ্টা’ তারেকের, নিজ দলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০  

এবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অনুসরণের চেষ্টা করলেন লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এ নিয়ে বিএনপির দল অভ্যন্তরে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। কেউ বলছেন, তিনি আদর্শচ্যুত হয়ে সরকারের অনুকম্পা পেতে এমনটি করছেন। আবার কেউবা বলছেন, মায়ের সঙ্গে নিজের সৃষ্ট দূরত্ব থেকেই তিনি অভিমানে এমনটি করেছেন।

দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে, শুক্রবার (২২ মে) এক ফেসবুক লাইভে তিনি বঙ্গবন্ধুর ব্যবহৃত বহুল প্রচলিত সংলাপ ‘দাবায়ে রাখতে পারবে না’ বলার পর থেকেই বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। তাদের ভাষ্য, বিএনপির দলীয় রাজনৈতিক আদর্শ থেকে তারেক রহমান দূরে সরে গিয়েছেন। আর পেছনে তাদের মা-ছেলের অভ্যন্তরীণ মান-অভিমানই অন্যতম কারণ। তাছাড়া এমনটিও হতে পারে, সরকারের অনুকম্পা পেতে তিনি এমন আচরণ করছেন।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে খালেদাপন্থী বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, তারেক নিজের স্বার্থের জন্য সব করতে পারেন। হয়তো বঙ্গবন্ধুর সংলাপ লাইভে নিজে বলাটাও সেই স্বার্থ হাসিলের জন্য তিনি ব্যবহার করেছেন। কিন্তু সে আশায় গুঁড়ে বালি। কারণ, তিনি ভুল দরজায় কড়া নাড়ছেন। সরকার দলীয়দের তার মতো ‘মাথা মোটা’ নয়। তারা ভালো করেই জানেন যে, একটি প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলের একজন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান কখন সরকার দলীয়দের তোষামোদ করে কথা বলে। তাই খালেদা জিয়াকে ডিঙিয়ে তাকে না জানিয়ে তারেকের ‘সরকারের অনুকম্পা’ পাওয়ার এই মিশন সফল হবে না।

বিএনপির অপর একটি পক্ষ বলছে, মা-ছেলের মধ্যকার অভিমানের বরফ এখনো গলেনি। বরং তা জমে হিমালয়ের আকার ধারণ করেছে। এরই প্রেক্ষিতে বিএনপি পরিবারতন্ত্রের রাজনীতিতে বিশ্বাসী হলেও আসন্ন দলীয় কাউন্সিলে অতীত কর্মকাণ্ডের জন্য তারেকের পদ থাকা নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছে। সবমিলিয়ে তারেক এখন ভিন্নপথে হাঁটার চেষ্টা করছেন।

এ বিষয়ে দেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, তারেক রহমানের বিষয়ে সাবধান থাকতে হবে। কারণ, তিনি বিষধর সাপের থেকেও ভয়ানক। নিজের স্বার্থের জন্য সব করতে পারেন, সব। যার প্রমাণ দেশবাসী দেখেছে। তিনি নিজের সাম্রাজ্য টিকিয়ে রাখার জন্য জন্মদাত্রী মাকেও কারাগারের ভেতরে রেখেছিলেন। তার মুক্তির বিন্দুমাত্র চেষ্টা করেননি। তাই এখন তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংলাপ নিজে বলছেন তার মানে এর পেছনে কোন ভিন্ন অর্থ লুকিয়ে আছে। সরকারসহ দেশবাসীকে সবাইকে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে, যাতে দুর্নীতির বরপুত্র তারেক নতুন কোন ষড়যন্ত্রে সফল হতে না পারে।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর