• রোববার   ১৩ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

  • || ০৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন

কিডনিতে পাথর হওয়ার কারণ ও লক্ষণ

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৯ মে ২০২১  

দিন দিন বাড়ছে কিডনি রোগে আক্রান্তের সংখ্যা। কিডনির সমস্যাগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো- স্টোন বা পাথর হওয়ার সমস্যা। এখন প্রায়শই শোনা যায়  কিডনি স্টোন বা বৃক্কে পাথর জমার সমস্যার কথা। আমাদের অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাপন এই সমস্যার মূল কারণ।

কিডনি স্টোনের প্রাথমিক লক্ষণগুলো নির্ভর করে স্টোন কিডনির কোথায় এবং কীভাবে রয়েছে তার উপর। কিডনিতে স্টোনের আকার-আকৃতিও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। পাথর খুব ছোট হলে সেটি কোনো ব্যথা-বেদনা ছাড়াই দীর্ঘদিন পর্যন্ত শরীরে থাকতে পারে! ফলে টেরও পাওয়া যায় না।

কিডনিতে পাথর জমার কারণ

কিডনিতে পাথর জমার বা তৈরি হওয়ার প্রকৃত কারণ এখননো জানা যায়নি। তবে কিছু কিছু বিষয় কিডনিতে পাথর তৈরির কারণ বলে বিবেচিত হয়। যেমন-

>> শরীরে পানির স্বল্পতা। কম পানি খাওয়া।

>> শরীরে ক্যালসিয়ামের মাত্রাতিরিক্ত আধিক্য।

>> অত্যাধিক পরিমাণে দুধ, পনির বা দুগ্ধজাত খাবার খাওয়ার অভ্যাস।

>> বারবার কিডনিতে ইনফেকশন হওয়া এবং এর জন্য যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা না করা।

কিডনিতে পাথর হওয়ার উপসর্গ

>> রক্তবর্ণের প্রসাব।

>> বমি বমি ভাব। অনেক সময় বমিও হতে পারে।

>>কিডনির অবস্থানে (কোমরের পেছন দিকে) ব্যথা। এই ব্যথা তীব্র তবে সাধারণত খুব বেশি ক্ষণস্থায়ী হয় না। ব্যথা কিডনির অবস্থান থেকে তলপেটেও ছড়িয়ে পড়তে পারে।

এই লক্ষণগুলো দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।