• রোববার   ১৩ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

  • || ০৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন

উজ্জ্বল, কোমল ও দাগহীন ত্বক মিলবে পাকা আমের জাদুকরী দুই ফেসপ্যাকে

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২১  

বাজারে এখন খুব সহজেই দেখা মিলছে রসালো ফল আমের। দামেও বেশ সস্তা হওয়ায় চাহিদা বাড়ছে এই মৌসুমি ফলটির। স্বাদে ও গন্ধে অতুলনীয় আম প্রচুর পুষ্টিগুণে ভরা। তাছাড়া আমে রয়েছে নানা ধরনের স্বাস্থ্য উপকারিতা। তাইতো খাদ্য তালিকায় পরিমিত আম রাখার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা।

ভিটামিন ‘এ’ ‘বি’ ‘সি’ ‘ই’ সমৃদ্ধ পাকা আম শরীর এমনকি ত্বকের উজ্জলতা বজায় রাখতেও কার্যকরী। এতে আছে ২০ ধরনের ভিটামিন ও মিনারেল। আপনি চাইলে খাওয়ার পাশাপাশি পাকা আম মুখেও ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরে পাবেন। ব্রণ থেকে ত্বকের কালচে দাগসহ রুক্ষ-শুষ্ক ত্বকের যত্নে পাকা আমের গুণাগুণ বেশ কার্যকর। সব মিলিয়ে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে আজই ঘরোয়া উপায়ে যত্ন নিতে ব্যবহার করুন পাকা আম।

কীভাবে পাকা আম ত্বকে ব্যবহার করবেন? চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ত্বকের যত্নে পাকা আমের জাদুকরী দুটি ফেসপ্যাক সম্পর্কে বিস্তারিত-

আম, লেবু ও মধুর মিশ্রন

এই ফেসপ্যাকটি আপনার ত্বককে মসৃণ এবং সতেজ রাখতে সাহায্য করবে। যাদের ব্রণ প্রবণ ত্বক, তাদের জন্য এই ফেসপ্যাকটি বিশেষ কার্যকরী। কারণ এতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আছে, যা আপনার ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। এজন্য প্রথমে পাকা আম চটকে এর সঙ্গে মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এরপর মুখ ভালো করে পরিষ্কার করে ফেসপ্যাকটি ত্বকে ব্যবহার করুন। ২০ মিনিট ত্বকে রেখে এরপর ধুয়ে ফেলুন। তারপর আপনার পছন্দমতো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

আম ও ওটমিলের ফেসপ্যাক

ওটমিল ও আম ত্বকের প্রাকৃতিক স্ক্রাব হিসেবে কাজ করে এবং ত্বকের মৃতকোষ সহজেই দূর করে। এজন্য পাকা আম চটকে দুধের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এর সঙ্গে ওটমিলের গুঁড়া মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন ১৫ মিনিট। এরপর হালকা স্ক্রাবিং করে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মুহূর্তেই ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল।

এছাড়াও আমের সঙ্গে বেসন মিশিয়েও মুখে ব্যবহার করতে পারেন এটিও খুব উপকারী। নিয়মিত এই ফেসপ্যাকগুলো ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি পাবেন এক উজ্জ্বল, কোমল ও দাগহীন ত্বক।