• রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১ ||

  • চৈত্র ২৮ ১৪২৭

  • || ২৯ শা'বান ১৪৪২

মাদারীপুর দর্পন
ব্রেকিং:

অনিদ্রা দূর করতে পড়ুন এই দোয়া

মাদারীপুর দর্পন

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ঘুম একটি ইবাদত। ক্লান্তি-শ্রান্তির দিন শেষে মানুষ ঘুমের রাজ্যে হারিয়ে যায়। শরীর ঠিক ও সুস্থ রাখতে পর্যাপ্ত ঘুম জরুরি। পরিমাণ মতো ঘুম দেহাবয়বে প্রশান্তি নিয়ে আসে। শরীর-মন হয়ে ওঠে সতেজ ও ফুরফুরে।  

পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘আমি তোমাদের রাতকে করেছি ক্লান্তি দূরকারী।’ (সুরা নাবা, আয়াত : ০৯)

সুস্বাস্থ্যের জন্য রাতে নিয়মমাফিক ঘুমানো জরুরি। অনেকেই অনিদ্রার সমস্যায় ভোগেন। এর অনেক কারণ থাকতে পারে। শারীরিক সমস্যা, রাত জাগা অভ্যাস কিংবা আরো নানান কারণ। রাত জাগা যেমন শরীরের ক্ষতিকর তেমনি বাজে অভ্যাসও বটে। কেননা রাত জাগার ফলে দিনে ঝিমুনি আসে, যা আপনার কাজের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। 

আল্লাহ তাআলাও রাতে ঘুমাতে আদেশ দিয়েছেন এবং দিনে আয়-উপার্জনের নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি ইরশাদ করেনঃ ‘রাতকে করেছি আবরণ, দিনকে করেছি জীবিকা উপার্জনের সময়।’ (সুরা নাবা, আয়াত : ১০-১১)

কিন্তু ঠিকভাবে ঘুম না গেলে মানুষের কাজকর্ম অগোছালো হয়ে যায়। অনেক মানুষের ক্ষেত্রে এমনটাও হয় যে- ঘুমাতে চাচ্ছেন কিন্তু ঘুম আসছে না। তাহলে ঘুম না আসলে করনীয় কী? তাড়াতাড়ি ঘুমানোর দোয়া কিংবা ঘুম না আসলে যে দোয়া পড়তে বলেছেন বিশ্বনবি, এ নিয়ে ছোট একটি সহজ আমল রয়েছে।

বুরায়দা (রা.) বর্ণনা করেন, খালিদ ইবন ওয়ালিদ আল-মাখজুমি (রা.) রাসূল (সা.)-এর কাছে অভিযোগ করেন, হে আল্লাহর রাসূল! অনিদ্রা রোগের কারণে আমি ঘুমাতে পারি না। তখন রাসূল (সা.) বললেন, যখন তোমরা শয্যাগ্রহণ করবে তখন বলবে-

আল্লাহুম্মা রাব্বাস সামাওয়াতিস সাবয়ি ওয়া মা আজাল্লাত, ওয়া রাব্বাল আরদিনা ওয়া মা আকাল্লাত; ওয়া রাব্বাশ শায়াত্বিনি ওয়া মা আদাল্লাত; কুন লি জারাং-মিন শাররি খালক্বিকা কুল্লিহিম জামিআ। আইঁ ইয়াফরুত্বা আলাইয়্যা আহাদুম মিনহুম, আও আইঁ ইয়াবগিয়া আলাইয়্যা; আজ্জা ওয়া জাল্লা, ছানাউকা ওয়ালা ইলাহা গাইরুকা, ওয়ালা ইলাহা ইল্লা আংতা।

অর্থ: হে আল্লাহ! সপ্ত আকাশ এবং যা কিছুর উপর তা ছায়া দেয় সে সব কিছুর রব্ব! জমিনগুলো এবং যা কিছু তা বহন করছে সে সব কিছুর প্রতিপালক! শয়তান ও যাদের সে গুমরাহ করে তাদের প্রতিপালক! তোমার সব সৃষ্টির অনিষ্ট থেকে তুমি আমার আশ্রয় হও, এদের কেউ যেন আমার উপর কর্তৃত্ব চালাতে (বা বাড়াবাড়ি করতে) বা বিরুদ্ধাচরণ করতে না পারে। হে সম্মানিত, তোমার আশ্রয়প্রার্থী, মহামান্বিত তোমার প্রশংসা, তুমি ছাড়া কোনো উপাস্য নেই, তুমি ব্যাতীত কোনো ইলাহ নেই। (আল-কালিমুত তাইয়্যিব : ৪৭/৩৩; মিশকাত, হাদিস : ২৪১১, তিরমিজি, হাদিস : ৩৫২৩)